সিরাজগঞ্জে হুমকির মুখে ৬ হাজার বিঘা ফসলি জমি - লালসবুজের কণ্ঠ
    রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৩:০১ পূর্বাহ্ন

    সিরাজগঞ্জে হুমকির মুখে ৬ হাজার বিঘা ফসলি জমি

    • আপডেটের সময় : বুধবার, ২৬ জুন, ২০১৯

    সিরাজগঞ্জ সংবাদাতাঃ
    শষ্য ও মৎস্য ভান্ডার হিসাবেখ্যাত চলনবিলের সিরাজগঞ্জের তাড়াশে ব্রিজের মুখে নেটিং করে মাছ চাষ প্রকল্পের উদ্যোগ গ্রহন করেছে শিক্ষা স্বাস্থ্য উন্নয়ন কার্যক্রম (শিসউক) নামে একটি বেসরকারি এনজিও। এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে বর্ষা মৌসুমে পানি নিস্কাশনে বাধা, ৬ হাজার বিঘা জমির চাষাবাদ অনিশ্চিত এবং ৫ শতাধিক জেলে পরিবার ক্ষতিগ্রস্থ হবে বলে আশংকা করছেন স্থানীয়রা। এ প্রকল্প বন্ধের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর স্বারকলিপি প্রদান করেছে উপজেলার নওগা ইউনিয়নের দেবীপুর এলাকার লোকজন।

    স্থানীয় গোলবার হোসেন, জামাল উদ্দিন, মাসুদ রানা, মতিউর রহমান, আব্দুর রশিদ ও আব্দুস সালাম জানান, নওগাঁ ইউনিয়নের দেবীপুর মৌজার দেবিপুর ব্রিজ ও নলুয়াকান্দি ব্রিজের মুখে ইতোমধ্যে লোহার নেটিং করা হয়েছে। হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কের ৬নং ব্রিজের মুখেও ইউক্যালিপটাস গাছের ছোট-ছোট কাঠের গুল পুঁতে নেটিং করার পায়তারা চলছে। ওই তিনটি ব্রিজের মুখে নেটিং করে মাছ চাষ করা হলে বর্ষা মৌসুমে বন্যার পানি নিস্কাশনে বাধার সৃষ্টি হবে। ফলে দেবীপুর মৌজাসহ আশাপাশের মৌজার প্রায় ছয় হাজার বিঘা জমির রবিশষ্য আবাদ অনিশ্চিত হয়ে পড়বে। শুধু তাই নয়, স্থানীয় ৫ শতাধিক জেলে পরিবার বর্ষাকালে চলনবিলের দেবীপুর মৌজা এলাকায় মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন। নেটিং করে মাছ চাষ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হলে ওই জেলে পরিবারগুলো বর্ষা মৌসুমে মাছ ধরতে পারবে না। এতে পরিবার পরিজন নিয়ে তাদের বেঁচে থাকা কষ্ট সাধ্য হয়ে পড়বে।

    শিক্ষা স্বাস্থ্য উন্নয়ন কার্যক্রমের (শিসউক) কর্মসূচি পরিচালক জিল্লুর রহমানের দাবী করেছেন, নেটিং পদ্ধতিতে মাছ চাষ করা হলে পানি প্রবাহের পথে কোন রকমের বাধার সৃষ্টি হবে না। তাছাড়া বেশির ভাগ জমি মালিকদের মতামতের ভিত্তিতেই প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

    উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ সাইফুল ইসলাম জানান, ব্রিজের মুখে নেটিং করে মাছ চাষ করলে বন্যার পানি নিস্কাশন বাধাগ্রস্থ হবে। ফলে খাদ্য উৎপাদন ব্যাপক হারে কমে যাবে।

    এ বিষয়ে তাড়াশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইফ্ফাত জাহান বলেন, জনদূর্ভোগের সৃষ্টি হয় এমন কোন প্রকল্পই বাস্তবায়ন করা যাবে না। সরেজমিনে দেখে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

    252Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর