ভিন দেশে রাজার বেশে ফিরছেন তাঁরা - লালসবুজের কণ্ঠ
    রবিবার, ২৯ মে ২০২২, ০২:৩৮ পূর্বাহ্ন

    ভিন দেশে রাজার বেশে ফিরছেন তাঁরা

    • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ১৩ মে, ২০২২

    লালসবুজের কন্ঠ,নিউজ ডেস্ক


    হলিউডে একরকম বিতাড়িত জনি ডেপ। সাবেক স্ত্রী আম্বার হার্ডের মামলার পরিপ্রেক্ষিতে একের পর এক কাজ হারিয়েছেন। দীর্ঘদিন পর ফ্রেঞ্চ সিনেমা দিয়ে আবার বড় পর্দায় ফিরছেন তিনি। ফরাসি অভিনেত্রী মাইওয়েন পরিচালিত ‘জিন ডু ব্যারি’ নামক সিনেমায় ফরাসি রাজা পঞ্চদশ লুইসের চরিত্রে দেখা যাবে ডেপকে। ২০২০ সালে ‘মিনামাটা’র পর দুই বছরে এটিই জনি ডেপের নতুন কোনো কাজ। অস্কার মনোনীত এই অভিনেতার বিপরীতে রাজার উপপত্নী জিন বেকুর ভূমিকায় থাকবেন সিনেমার পরিচালক মাইওয়েন।

    রাজা লুইস প্রায় ৫৯ বছর ফ্রান্স শাসন করেন। মৃত্যুর আগে তিনি দুর্নীতি ও অবাধ্যতার দায়ে অভিযুক্ত হয়েছিলেন। গিলোটিনে তাঁর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয়। ভ্যারাইটির রিপোর্ট অনুযায়ী, প্রাথমিকভাবে ফ্রান্সের ভার্সাই প্রাসাদে শুরু হবে সিনেমার শুটিং। প্রস্তুতি শেষে এ বছরই শুটিং শুরু হবে।

    বর্তমানে সাবেক স্ত্রী অ্যাম্বার হার্ডের বিরুদ্ধে আনা মানহানির মামলা লড়ছেন জনি ডেপ। ২০১৮ সালে ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকার একটি লেখায় হার্ড নিজেকে ডমেস্টিক ভায়োলেন্সের শিকার বলে উল্লেখ করেন। এরপরই একে একে কাজ হারাতে থাকেন ডেপ।

    ‘মিটু’ আন্দোলনের সময় যৌন হেনস্তার অভিযোগ উঠলে আড়ালে যেতে বাধ্য হন অস্কার বিজয়ী অভিনেতা কেভিন স্পেসি। গত বছর ‘দ্য ম্যান হু ড্র গড’ নামের একটি সিনেমায় অল্প সময়ের জন্য অভিনয়ের সুযোগ মিলেছিল। এরপর আবার আড়ালে চলে যান কেভিন। জানা যায়, কেভিনের নতুন সিনেমা ‘১২৪২- গেটওয়ে টু দ্য ওয়েস্ট’। হাঙ্গেরি ও মঙ্গোলিয়ায় সিনেমাটির শুটিং হবে। পরিচালনা করবেন হাঙ্গেরিয়ান কিংবদন্তি পরিচালক পিটার সুচ। সিনেমাটি তৈরি হচ্ছে চেঙ্গিস খানের নাতি বাতু খানকে নিয়ে। চেঙ্গিস খানের ছেলেরা মারা যাওয়ার পর তিনি মঙ্গল সাম্রাজ্যের সবচেয়ে সম্মানিত শাহজাদা হয়ে ওঠেন। চীনের সঙ্গে ঐতিহাসিক যুদ্ধ জিতেছিলেন তিনি। কিন্তু ইউরোপে আক্রমণ করলে এক সময় পরাজিত হন তিনি। এমন ঐতিহাসিক সিনেমায় গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করবেন কেভিন স্পেসি।

    ২০১৭ সালে অভিনেতা অ্যান্টনি রেপ প্রথম কেভিন স্পেসির বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ আনেন। সেটা নাকি ১৯৮৬ সালের ঘটনা। তখন রেপের বয়স ছিল মাত্র ১৪ ও স্পেসির ২৬ বছর। এরপর ১৫ জন কেভিন স্পেসির বিরুদ্ধে নিজেদের যৌন হয়রানির কথা বলেন। কিন্তু এসব অভিযোগের কোনোটিই আদালতে প্রমাণিত হয়নি। এসব অভিযোগের পর নেটফ্লিক্সের ‘হাউস অব কার্ডস’ সিরিজসহ একাধিক সিনেমা থেকে বাদ পড়েন কেভিন স্পেসি।

    নিউজ ডেস্ক/স্মৃতি

    59Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর