নিজের স্ত্রীকে দিয়ে প্রেমের ফাঁদ, মটরসাইকেল ছিনতাই - লালসবুজের কণ্ঠ
    শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:১১ অপরাহ্ন

    নিজের স্ত্রীকে দিয়ে প্রেমের ফাঁদ, মটরসাইকেল ছিনতাই

    • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট, ২০২২

    রাজশাহী প্রতিবেদক:


    প্রেমের ফাঁদ পেতে মটরসাইকেল ছিনতাই করে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন বৃষ্টি আখতার (২০) নামের এক নারী। এসময় ছিনতাইয়ে জড়িত বৃষ্টির স্বামী সিরাজুলকে পুলিশ গ্রেফতার করতে না পারলেও ছিনতাই করা মটর সাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে।

    মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) এতথ্য জানিয়েছেন শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক কুমার দাস।

    জানা গেছে, প্রেমের ফাঁদ পেতে স্বামীর সহযোগিতায় মটরসাইকেল ছিনতাই করেন বৃষ্টি আখতার। পরে ছিনতাই হওয়া মটরসাইকেলটি দিনাজপুর জেলার বিরামপুর থেকে উদ্ধার করা হয়।

    গ্রেফতার বৃষ্টি আখতার বগুড়া সদরের তেলধাপ গ্রামের সিরাজুল ইসলাম সেতুর স্ত্রী। ওসি দীপক কুমার জানান, বগুড়া সদর থানার দাড়িয়াল গ্রামের আব্দুল ওয়াহাব কিছুদিন আগে লটারীতে একটি এ্যাপাচি ফোরভি ১৬০ সিসি মোটর সাইকেল পান।

    ওয়াহাব ও তার ছেলে রবিন (১৭) মোটর সাইকেলটি চালাতো। পার্শ্ববর্তী তেলধাপ গ্রামের সিরাজুল ইসলাম সেতু মটর সাইকেলটি ছিনতাই করার পরিকল্পনা করেন। পরিকল্পনা অনুযায়ী সিরাজুল তার স্ত্রী বৃষ্টিকে রবিনের মোবাইল নাম্বার সংগ্রহ করে দেয় এবং তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক স্থাপন করতে বলে।

    স্বামীর পরামর্শে বৃষ্টি রবিনের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলে প্রেমের সম্পর্ক স্থাপন করে। এরপর রবিনের সঙ্গে দেখা করা প্রস্তাব দেয় বৃষ্টি। সেই অনুযায়ী গত ৯ আগস্ট দুপুরের পর রবিন তার বন্ধু নিরবকে সাথে নিয়ে মটরসাইকেল যোগে শিবগঞ্জ উপজেলার ভাসুবিহার নরপতির ধাপ এলাকায় যায়। সেখানে বৃষ্টি আগে থেকেই রবিনের জন্য অপেক্ষা করছিল।

    রবিন তার বন্ধুকে সাথে নিয়ে ভাসুবিহার নরপতির ধাপে পৌঁছে বৃষ্টির সঙ্গে দেখা করে। তারা দু’জনে নির্জন স্থানে বসে গল্প শুরু করে। এই সুযোগে বৃষ্টি তার স্বামীকে মোবাইল ফোনে ম্যাসেজ দিয়ে তাদের অবস্থান জানিয়ে দেয়। বৃষ্টি ওই যুবকের সঙ্গে গল্প করার সময় আগে থেকেই নিয়ে আসা চেতনা নাশক মিশ্রিত কোমল পানীয় পান করায়।

    কিছুক্ষণের মধ্যে রবিন অসুস্থ বোধ করে। এমন সময় বৃষ্টির স্বামী তার এক সহযোগীকে সাথে নিয়ে সেখানে পৌঁছে নিরব এবং বৃষ্টিকে সেখানে বসে প্রেম করার অভিযোগ তুলে চড় থাপ্পড় দিয়ে মটরসাইকেলসহ তাকে তুলে নিয়ে যায়। কিছুদুর গিয়ে ফাঁকা স্থানে নিরবকে মারপিট করে রাস্তায় ফেলে রেখে মটরসাইকেল ও মোবাইল ফোন নিয়ে সিরাজুল পালিয়ে যায়।

    ১৪ আগস্ট রবিনের মা রোজিনা আখতার শিবগঞ্জ থানা পুলিশকে জানালে পুলিশ অভিযান শুরু করে। পরে তথ্য প্রযুক্তির সহযোগিতায় পুলিশ বৃষ্টি আখতারের অবস্থান শনাক্ত করে এবং তাকে গ্রেফতার করে।

    এসময় বৃষ্টির হেফাজত থেকে মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। বৃষ্টির স্বামী পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ বৃষ্টির দেওয়া তথ্য মতে দিনাজপুর জেলার বিরামপুর থানা এলাকা থেকে উদ্ধার করে।

    শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক কুমার জানান, গ্রেফতারকৃত বৃষ্টি আখতার আদালতে স্বীকারোক্তি মুলক জবানবন্দী দিয়েছে।


    টিআর/এআর

    66Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর