নওগাঁর রাণীনগরে আগাছানাশক বিষ ছিটিয়ে তিন কৃষকের জমির ধান নষ্ট করার অভিযোগ - লালসবুজের কণ্ঠ
    বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:২৪ অপরাহ্ন

    নওগাঁর রাণীনগরে আগাছানাশক বিষ ছিটিয়ে তিন কৃষকের জমির ধান নষ্ট করার অভিযোগ

    • আপডেটের সময় : সোমবার, ১০ অক্টোবর, ২০২২

    নওগাঁ প্রতিনিধি


    নওগাঁর রাণীনগরে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তিন কৃষকের তিন বিঘারও বেশি জমিতে আগাছা নাশক বিষ ছিটিয়ে জমির ধান নষ্ট করার অভিযোগ উঠেছে। রাতের অন্ধকারে দুর্বৃত্তরা বিষ ছিটিয়ে এসব জমির ধান নষ্ট করেছে। গত শনিবার রাতে উপজেলার
    বানিয়াপাড়া গ্রামের ফসলের মাঠে এ ঘটনাটি ঘটে।

    এ ঘটনায় সুষ্ঠ বিচার চেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত তিন কৃষক রবিবার রাণীনগর থানায় লিখিতি অভিযোগ দায়ের করেছেন। এর আগেও বিষ ছিটিয়ে গত ইরি-বোরো মৌসুমে এই তিন কৃষকের জমির ফসল নষ্ট করা হয়েছিল। অভিযোগে জানা যায়, দীর্ঘদিন থেকে উপজেলার বানিয়াপাড়া গ্রামের গণেশ চন্দ্রের বেশ কিছু জমি বর্গা হিসাবে চাষ করে আসছেন পার্শ্ববর্তী বিল পালশা গ্রামের কৃষক বকুল সরদার।

    এবার আমন মৌসুমে বর্গা জমিতে আতবসহ বিভিন্ন জাতের ধান চাষ করেছেন। এরই মধ্যে শনিবার রাতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এলাকার জনৈক কয়েকজন ব্যক্তি তার প্রায় ৫০ শতাংশ জমির আতব ধানে আগাছানাশক বিষ ছিটিয়ে দেয়। এতে জমির ধান লালটি হয়ে নষ্ট হয়ে গেছে। এছাড়া বানিয়াপাড়া গ্রামের জলিলের ৪১ শতাংশ জমির ধান ও রমজানের ২৫ শতাংশ জমির আতব ধান ওই রাতেই একইভাবে আগাছানাশক বিষ ছিটিয়ে ধানগুলো নষ্ট করে দিয়েছেন। ফলে তিন কৃষকের তিন বিঘারও বেশি জমির আতব ধান নষ্ট হওয়ায় প্রায় দেড় লাখ টাকা ক্ষতি হয়েছে।

    ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক বকুল সরদার, জলিল ও রমজান জানান, শত্রুতা করে রাতের অন্ধকারে আমাদের জমিগুলোতে আগাছানাশক বিষ ছিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। রবিবার সকালে খবর পেয়ে জমিতে গিয়ে দেখি জমির সব ধান লালটি হয়ে নষ্ট হয়ে গেছে। এর আগেও গত ইরি মৌসুমে একইভাবে আমাদের জমির ধান নষ্ট করা হয়েছিল। এ ঘটনায় আমরা থানায় অভিযোগ দিয়েছি।

    ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের দাবি জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্ত তিন কৃষক। এ ব্যাপারে রাণীনগর থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

     

    সজিব/স্মৃতি

    0Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    এই বিভাগের আরও খবর