1. [email protected] : News room :
খেলা হবে সেই উইকেটেই, স্পিনের লড়াইয়ে প্রস্তত বাংলাদেশও - লালসবুজের কণ্ঠ
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ১১:১০ পূর্বাহ্ন

খেলা হবে সেই উইকেটেই, স্পিনের লড়াইয়ে প্রস্তত বাংলাদেশও

  • আপডেটের সময় : সোমবার, ২৪ জুন, ২০১৯

স্পোর্ট ডেস্ক:

-সবচেয়ে ভালো স্পিন খেলে কারা?
অথচ সেই ভারতই সাউদাম্পটনের হ্যাম্পশায়ারের রোজ বৌলে শনিবার আফগানিস্তানের স্পিনে প্রায় একপ্রকার নাস্তানাবুদ।

মুজিবুর রহমান, রশিদ খান ও মোহাম্মদ নবী-এই তিন স্পিনারই ভারতের বিখ্যাত ব্যাটিং লাইনআপকে বিপদে ফেলে দেন। শনিবারের সেই ম্যাচের উইকেটেই হবে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান লড়াই। ভারত-আফগানিস্তান ম্যাচের প্রতিটি ওভার দেখা বাংলাদেশ কোচ স্টিভ রোডস জানিয়ে দিলেন-‘এই উইকেট কিছু স্লো। এখানে স্পিনাররা অবশ্যই কিছুটা সুবিধা পাবে। ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে আফগান স্পিনাররা চমৎকার বোলিং করেছিলো। তাদের বোলিংয়ের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা-সন্মান আছে। রশিদ খান বিশ্বমানের। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে তার সময়টা খারাপ গেছে। দিনটা তার ভালো ছিলো না। যদিও আমরা জানি রশিদ খান খুবই আগ্রাসী বোলার। তার বোলিং লাইন লেন্থ দুর্দান্ত। তার সঙ্গী আরো দুজন মোহাম্মদ নবী এবং মুজিবও দক্ষ। আমরা তাদের বোলিংকে সন্মান করি, কিন্তু ভীত নই। আর আমাদের দলের ব্যাটসম্যানরা তো গড়েই উঠেছে স্পিনিং উইকেটে।’

আফগানিস্তানের স্পিন সামাল দেয়ার হোমওয়ার্কটা বাংলাদেশ ম্যাচের আগের দিন বেশ ভালো ভাবেই সেরে নিলো। নেটে ব্যাটিং অনুশীলন করা সব ব্যাটসম্যান বেশিরভাগ সময় কাটালেন স্পিন খেলে। ব্লক করলেন কম। ছক্কাই হাঁকালেন বেশি!

তবে রোজ বৌলের মাঠের যা আকৃতি তা দেখে এই ম্যাচের জন্য পরিকল্পনায় কিছুটা বদল আনছে বাংলাদেশ। বিশাল মাঠ এটি। চারধারের বাউন্ডারি সেন্টার উইকেট থেকে অনেক দুরে। এত বিশাল মাঠে ছক্কা হাঁকালে ক্যাচ হওয়ার আশঙ্কাই বেশি। আর তাই এই মাঠে ছক্কা-চারের চেয়ে দৌড়ে দুই-তিন রান বেশি নেয়ার পরিশ্রমী পরিকল্পনা করছে বাংলাদেশ।

ভারত-আফগানিস্তানের লো স্কোরিং ম্যাচের ৫৯৯ বলের মধ্যে ৩৩০ বলই ছিলো ডট! সমান ১৫টি বাউন্ডারি ও মাত্র ১টি করে ছক্কা হাঁকায় উভয় দল। রোজ বৌলের এই উইকেটের সঙ্গে মিরপুরের উইকেটের স্বভাব বেশ ভালোভাবেই মিলমিশ খাচ্ছে।

সাউদাম্পটনে সপ্তাহখানেক ধরে থাকছে আফগানিস্তান। এরইমধ্যে এই মাঠে একটি ম্যাচও খেলেছে তারা। পারফরমেন্সও চমৎকার। আর আফগান দল থাকছে এই স্টেডিয়ামের সঙ্গে এক দরজায় লাগানো হিলটন হোটেলে। এই মাঠের সঙ্গে তাদের পরিচিতি বেশ। আর মাঠের উইকেটের সঙ্গে বন্ধুত্ব বেশি বাংলাদেশের!

আজো থাকছে তাহলে সেই সখ্যতা?
বার্তা২৪

24Shares

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর