উত্তরের ঈদযাত্রায় সিরাজগঞ্জের মহাসড়কের প্রস্তুতি - লালসবুজের কণ্ঠ
    রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৪:৩৭ পূর্বাহ্ন

    উত্তরের ঈদযাত্রায় সিরাজগঞ্জের মহাসড়কের প্রস্তুতি

    • আপডেটের সময় : শনিবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২২

    নিউজ ডেস্ক,লালসবুজের কণ্ঠ:


    উত্তরবঙ্গের প্রবেশদ্বার বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ সিরাজগঞ্জের মহাসড়ক দিয়ে প্রতিদিন ২২ জেলার অন্তত ১০ থেকে ১২ হাজার যানবাহন চলাচল করে। তাই প্রতিবছর ঈদযাত্রায় এই মহাসড়কে যানজটের ভোগান্তি যেন নিত্যসঙ্গী। পাশাপাশি মহাসড়কের নলকায় নির্মাণাধীন সেতুর কাজ শেষ না হলে এবারের ঈদযাত্রায় ভোগান্তি আরও বাড়বে।

    তবে ঈদের আগেই ঝুঁকিপূর্ণ নলকা সেতুর পাশেই নির্মিত হতে যাওয়া নতুন সেতুর অন্তত এক লেন খুলে দিতে কাজ করে যাচ্ছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। পাশাপাশি সংস্কার করা হচ্ছে মহাসড়কের খানাখন্দ। এ ছাড়া সম্পূর্ণরূপে প্রস্তুত আছে জেলা পুলিশ ও হাইওয়ে পুলিশ।

    মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণের কাজ করা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মীর আখতার হোসাইন লিমিটেডের প্রকল্প ব্যবস্থাপক মো. এখলাছ উদ্দিন জানান, আসন্ন ঈদ উপলক্ষে মহাসড়কের যানজট ও ঘরমুখী মানুষের দুর্ভোগ কমাতে আমরা ঈদের ছুটির আগেই নলকার নতুন সেতুর এক লেন খুলে দেব। মহাসড়কের খানাখন্দগুলো সংস্কারের কাজ শুরু করেছি, যা ঈদযাত্রার আগেই শেষ হবে। আশা করছি ঈদে ঘরমুখী মানুষ কোনো ভোগান্তিতে পড়বে না।

    মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণের জন্য বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম পাড় থেকে চান্দাইকোনা পর্যন্ত সিরাজগঞ্জের ৩৫ কিলোমিটার মহাসড়কজুড়েই চলছে সড়ক প্রশস্তের কাজ। এর মাঝে অনেক জায়গায় এক লেন বন্ধ করে কাজ করা হচ্ছে। ফলে বাকি লেন দিয়েই চলতে হচ্ছে দুদিকের গাড়ি। ঈদের আগেই অন্তত সড়ক মেরামতের কাজ শেষ না হলে ঈদযাত্রায় গলার কাঁটা হয়ে দাঁড়াবে সিরাজগঞ্জের সম্পূর্ণ মহাসড়ক।

    তবে ঈদের আগেই সড়ক পুরোপুরি খুলে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এমন কথা জানায় প্রতিটি সরকারি দপ্তর।

    ঢাকা-ঠাকুরগাঁও রুটের হানিফ এন্টারপ্রাইজের বাসচালক মোখলেছুর রহমান বলেন, বর্তমানে মহাসড়কের যে অবস্থা, যদি নলকা সেতু খুলে না দেওয়া হয় এবং মহাসড়কের কাজ শেষ না হয়, তাহলে এই ঈদে ঘরমুখী যাত্রীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হবে। সেই সঙ্গে ভোগান্তিতে পড়তে হবে পরিবহনশ্রমিকদের। বাসের টাইম শিডিউলও ঠিক থাকবে না।

    সড়ক ও জনপথ (সওজ) অধিদপ্তরের সিরাজগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. দিদারুল আলম তরফদার বলেন, ঈদযাত্রায় মানুষের ভোগান্তি কমাতে ঈদের আগেই নলকার নতুন সেতুর এক লেন ছেড়ে দেওয়া হবে। শুধু তা-ই নয়, মহাসড়কের অসমতল জায়গাগুলোয় ইট, পাথর ও বিটুমিন দিয়ে সমতল করে মহাসড়কের সব লেন খুলে দেওয়া হবে। আশা করি সিরাজগঞ্জের মহাসড়কের কোথাও কোনো লেন বন্ধ থাকবে না।

    সিরাজগঞ্জের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর (টিআই) মো. সালেকুজ্জামান খান সালেক বলেন, ঈদযাত্রায় সিরাজগঞ্জের মহাসড়ক যানজটমুক্ত রাখতে সিরাজগঞ্জ ট্রাফিক বিভাগের অন্তত ১০ জন ট্রাফিক ইন্সপেক্টর ও ট্রাফিক সার্জেন্টের পাশাপাশি ৯ জন সহকারী সার্জেন্টসহ শতাধিক ট্রাফিক সদস্য কাজ করবেন। যানজট নিরসনে ২০ রজমানের পর থেকে মহাসড়কে কাজ করবে পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ। আমরা মহাসড়ক যানজটমুক্ত রাখার পাশাপাশি সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কাজ করব।

    হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লুৎফর রহমান বলেন, এবার মহাসড়কে ভোগান্তি কমাতে ঈদের এক সপ্তাহ আগ থেকে মহাসড়কে দায়িত্ব পালন করতে ইতোমধ্যে পুলিশের ৫০ সদস্য প্রস্তুত আছেন। এ ছাড়া পুলিশের আরও ২৫০ সদস্য চেয়ে প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে।

    মহাসড়কে চাঁদাবাজির বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সিরাজগঞ্জের মহাসড়কে কোনো প্রকার চাঁদাবাজি সাধারণত হয় না। আর হলেও সেটা বরদাশত করা হবে না। মহাসড়কে তিন চাকার যানের ব্যাপারে তিনি বলেন, আমরা প্রতিনিয়তই তাদের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইন অনুযায়ী মামলা দিচ্ছি। এ ছাড়া ঈদ সামনে রেখে আমরা এ বিষয়ে আরও কঠোর হব।

    হাইওয়ে পুলিশ বগুড়া রিজিয়নের পুলিশ সুপার মুনশী শাহাবুদ্দিন বলেন, আমরা বিশেষ করে নলকা সেতু এলাকা নিয়ে বেশি চিন্তিত। আমরা ইতোমধ্যে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে এ বিষয়ে বৈঠক করেছি। ঈদের এক সপ্তাহ আগ পর্যন্ত আমরা সেখানকার অবস্থা ও কাজের সার্বিক দিক পর্যবেক্ষণ করে সিদ্ধান্ত নেব। এ ছাড়া ঈদযাত্রার মহাসড়কে ভোগান্তি কমাতে আমরা চাহিদা অনুযায়ী ফোর্স দেওয়ার চেষ্টা করব।

    সিরাজগঞ্জের পুলিশ সুপার হাসিবুল আলম বলেন, ঈদযাত্রায় মানুষের দুর্ভোগ দূর করতে সিরাজগঞ্জের মহাসড়কে ২১ রমজান থেকেই সিরাজগঞ্জ জেলা পুলিশ কাজ শুরু করবে। পুরোদমে কাজ শুরু হবে ২৩ রমজান থেকে। যা চলবে ঈদের পঞ্চম দিন পর্যন্ত। তিন শিফটে ভাগ হয়ে ৮ ঘণ্টা করে ২৪ ঘণ্টায় ৪৫০ থেকে ৫০০ পুলিশ সদস্য কাজ করবেন। পাশাপাশি মহাসড়কে কোনো দুর্ঘটনা ঘটলে দ্রুত সেগুলো সরিয়ে নিয়ে মহাসড়ক ক্লিয়ার রাখতে আলাদা টিম কাজ করবে। মহাসড়কে মোবাইল টিমও ২৪ ঘণ্টা কাজ করে যাবে।


    লালসবুজের কণ্ঠ/এস.আর.এম.

    10Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর