অনশন করে কিশোরকে বিয়ে করলেন তরুণী - লালসবুজের কণ্ঠ
    শনিবার, ০৮ অক্টোবর ২০২২, ১২:৫২ পূর্বাহ্ন

    অনশন করে কিশোরকে বিয়ে করলেন তরুণী

    • আপডেটের সময় : রবিবার, ১৪ আগস্ট, ২০২২

    রাজশাহী প্রতিবেদক:


    অনশনে বসে কিশোর প্রেমিককে বিয়ে করেছেন এক তরুণী। শুক্রবার (১২ আগস্ট) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বেলপুকুর ইউনিয়নে চক ধাদাস এলাকায় স্থানীয় কাজী তাদের বিয়ে পড়ান।

    বর সিজানুর রহমান (১৫) চক ধাদাশ গ্রামের লতিফুরের ছেলে। কনে সোনিয়া খাতুন (১৯) একই উপজেলার বানেশ্বর ইউনিয়নের ভাড়রা গ্রামের বাবুল আলীর মেয়ে। প্রায় সাড়ে তিন বছর ধরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

    স্থানীয়রা জানায়, বছর তিনেক আগে চক ধাদাস এলাকায় খালার বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন সোনিয়া। সেখানে তাকে দেখে প্রেমে পড়ে যায় সিজানুর। মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে যোগাযোগ করে সিজানুর। এরপর মোবাইলে নিয়মিত তাদের কথা হতো। এক পর্যায়ে দুজনে প্রেমের সম্পর্কে জড়ান। তারা একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কেও জড়িয়েছেন।

    তরুণী বলেন, আমাদের সাড়ে তিন বছরের সম্পর্ক। বিয়ে করবে বলে অনেকবার শারীরিক সম্পর্ক হয়েছে আমাদের। পরে বিয়ের জন্য চাপ দিলে কৌশলে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। উপায় না দেখে শুক্রবার রাত ৮টার দিকে ছেলের বাড়িতে গিয়ে অবস্থান নিই।

    এদিকে খবর পেয়ে থানা থেকে পুলিশ আসে। স্থানীয়ভাবে বিষয়টি সমাধানের কথা বলে চলে যান পুলিশ সদস্যরা। পরে দুই পক্ষকে নিয়ে বসেন গ্রাম্য মাতব্বররা। সেখানেই তাদের বিয়ের সিদ্ধান্ত আসে।

    সালিসে উপস্থিত ছিলেন বেলপুকুর ইউনিয়ন পরিষদের ২ নম্বর ওয়ার্ডর সদস্য লতিফুল। তিনি বলেন, এক লাখ ২০ হাজার টাকা দেনমোহরে বিয়ের সিদ্ধান্ত হয়। ওই রাতেই স্থানীয় কাজী ডেকে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়েছে।

    বেলপুকুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, বিয়ের দাবিতে ওই তরুণী প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছিলেন। খবর পেয়ে পুলিশ পাঠানো হয়। এ বিষয়ে কথা বলতে দুই পরিবারের সদস্যদের থানায় আসতে বলে পুলিশ চলে আসে। পরে আর কী হয়েছে তারা জানায়নি।


    টিআর/এআর

    13Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর