সাতটি খালের কচুরীপানায় নিজড়াবাসির ভোগান্তি চরমে - লালসবুজের কণ্ঠ
    রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৩:০৫ পূর্বাহ্ন

    সাতটি খালের কচুরীপানায় নিজড়াবাসির ভোগান্তি চরমে

    • আপডেটের সময় : রবিবার, ৫ জুন, ২০২২

    গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি


    গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার নিজড়া ইউনিয়নের বছর জুড়ে ৭টি খালে থাকে কচুরীপানায় ভরা। এছাড়া  মরা পঁচা কচুরীপানা ও ময়লা আর্বজনা পড়ে খালের তলদেশ ভরাট হয়ে যাওয়ায় চরম বিপাকে পড়েছেন কৃষক ও এলাকাবাসী।

    ফলে নৌকায় করে জমির ফসল বাড়ীতে আনতে পারছেন না কৃষকরা। আবার পানি পঁচে চরম দুর্গন্ধ হওয়ায় তা ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। পঁচা পানির কারনে বেড়েছে মশা মাছির উপদ্রব। যার কারনে এখানে অনেকেই পানিবাহিত বিভিন্ন রোগে ভুগছেন। এই কচুরীপানার কারনে এ অঞ্চলের মানুষের যেন ভোগান্তির শেষ নাই। এমতাবস্থায়, জরুরি কচুরীপানা অপসারনসহ খাল খনন করার দাবী স্থানীয় লোকজনদের।

    জানা গেছে, সদর উপজেলার নিজড়া ইউনিয়নে রয়েছে ৭টি খাল।এসব খালের পানি নিজড়া, বটবাড়ী, বিদ্যাধর,নারকেলবাড়ীসহ ৭টি গ্রামের প্রায় লক্ষাধিক মানুষ রান্না-বান্নাসহ নিত্য প্রয়োজনীয় কাজে ব্যবহার করে থাকেন। বিশেষ করে এসব খালের পানি ব্যবহার করে প্রায় ৫০ হাজার কৃষক ১০ হাজার একর জমিতে চাষাবাদ করে নানান ফসল ফলান।

    কিন্তু কচুরীপানায় ও খালের তলদেশ ভরাট হয়ে যাওয়া এসব খাল দিয়ে নৌকা না চলায় বিলের জমি থেকে ধান কেটে ঘরে তুলতে পরছেন না কৃষকরা।সেই সাথে পানি প্রবাহ বন্ধ হয়ে পড়ায় খালের পানি পঁচে যাওয়ায় ব্যবহার অযোগ্য হয়ে পড়েছে। খালগুলো দিয়ে চলাচল ও পানি ব্যবহারের যোগ্য করে তুলতে কচুরীপানা অপসারনসহ তলদেশ খননের দাবী জানিয়েছেন নিজড়া গ্রামের ফরিদ আহম্মেদ মিনা, সুশীল বিশ্বাস, তপন বালা,অমর দাস ও মাকসুদুর রহমানসহ স্থানীয়রা।

    সরকারিভাবে এই সমস্যার সমাধান করতে এখনই খাল খনন ও কচুরীপানা অপসারনের জন্য পদক্ষেপ নেবেন যথাযথ  কর্তৃপক্ষ জনগনের মনে রয়েছে এমনটিই প্রত্যাশা।

    নিজড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আহম্মদ আলী মিনা ধলু বলেন, আশা করি এলাকাবাসীর উন্নয়ন ও সংস্কারে সরকার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবেন। এলাকাবাসীর এটি প্রানের দাবী। আমি নিজড়া ইউনিয়নের সব খালের কচুরীপানা পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা ও খাল খননের সব রকমের প্রচেষ্টা চালাবো।

    গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মহসিন উদ্দিন বলেন, ওই এলাকার ৭টি খাল থেকে অতি তাড়াতাড়ি কচুরীপানা অপসারনসহ খননের ব্যবস্থা নেয়া হবে।

    দুলাল/স্মৃতি

    19Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর