1. [email protected] : News room :
শিবগঞ্জে বিএসএফের গুলিতে নিহত যুবকের লাশ হস্তান্তর - লালসবুজের কণ্ঠ
রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০৪:৩০ পূর্বাহ্ন

শিবগঞ্জে বিএসএফের গুলিতে নিহত যুবকের লাশ হস্তান্তর

  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ৯ জুলাই, ২০১৯

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার কিরণগঞ্জ সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের গুলিতে নিহত দুলাল উদ্দিনের মরদেহ স্থানীয় বিজিবি ও পরিবারের নিকট হস্তান্তর করেছে বিএসএফ।

নিহত ব্যক্তি উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের কিরণগঞ্জ গ্রামের ঝড়–টোলার সফিকুল ইসলামের ছেলে।

সোমবার রাত ১০টার দিকে ভারতের শবদলপুর সীমান্ত এলাকায় মরদেহটি বিজিবি ও পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ সময় নিহতের পিতা সফিকুল ইসলাম, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক, ইউপি সদস্য কফিল উদ্দিন ও নিহতের চাচা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও কিরণগঞ্জ বিওপির ক্যাম্প কমান্ডারসহ তিনজন উপস্থিত ছিলেন। পরে, রাত সাড়ে ১২টার দিকে পারিবারিক কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

এদিকে বিজিবির দাবি, নিহত দুলাল একজন চোরাচালানী সিন্ডিকেটের সদস্য। বিনোদপুর ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক জানান, এ সীমান্ত দিয়ে সাধারণ গরু ব্যবসা হয় না। মাদক ও চোরাই মোবাইলসহ অন্যান্য জিনিসপত্র পাচারের অন্যতম প্রধান রুট এটি। দুলালসহ কয়েকজন কিরণগঞ্জ বর্ডার দিয়ে ভারতে প্রবেশ করছিল। এ সময় ভারতীয় বিএসএফের গুলিতে সে মারা যায়। ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে বলে সীমান্তের বাসিন্দা আব্বাস আলী জানিয়েছেন।

জানা গেছে- মালদহ জেলায় বাংলাদেশ সীমান্ত রয়েছে ১৮০ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে। এ সব এলাকার মধ্যে গরু পাচারের অন্যতম করিডর কালিয়াচক-৩ ব্লকের শবদলপুর সীমান্ত। অভিযোগ রয়েছে- এ সীমান্ত পথে দেদারে কাশির সিরাপ-ফেনসিডিল বাংলাদেশে পাচার হয়। এ পথেই বাংলাদেশের দিক থেকে এপারে পাচার করা হয় জাল নোট। সীমান্তে প্রহরারত বিএসএফের জওয়াানদের এড়িয়ে এই পাচারের কারবার চলে বলে অভিযোগ উঠেছে।

মালদহ জেলা পুলিশ সূত্র জানায়, সোমবার সকালে বাংলাদেশ সীমান্তের শবদলপুর গ্রাম থেকে গুলিবিদ্ধ এক যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ বিএসএফের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে নিহত ওই যুবক বাংলাদেশি এবং গরু পাচারের সঙ্গে যুক্ত বলে জানা গেছে। বিএসএফের গুলিতে তার মৃত্যু হয়। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, মরদেহটি কাঁটাতারের বেড়ার ওপারে বাংলাদেশের দিকে ভারতীয় ভূখ-েই পড়েছিল।

প্রসঙ্গত, রোববার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে দুলালসহ বেশ কয়েকজন চোরাকারবারী কিরণগঞ্জ সীমান্তের আন্তর্জাতিক মেইন পিলার ১৭৮ নম্বর এলাকা দিয়ে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করে। এ সময় ভারতের মালদাহ জেলার বিএসএফের ২৪ নম্বর ব্যাটালিয়ন শুকদেবপুর ক্যাম্পের সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়লে দুলালের বুকে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। অপর সহযোগিরা পালিয়ে আসে। পরে বিএসএফ সদস্যরা নিহত দুলালের মরদেহ বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকা থেকে তাদের শুকদেবপুর ক্যাম্পে নিয়ে যান।

এরআগে কালিয়াচক থানা পুলিশ নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। এ নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে কালিয়াচক থানা পুলিশ।

67Shares

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর