শরীয়তপুরে সাংবাদিককে ‘প্রাণ নাশের হুমকি’ প্রধান শিক্ষকের - লালসবুজের কণ্ঠ
    শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০৯:০২ অপরাহ্ন

    শরীয়তপুরে সাংবাদিককে ‘প্রাণ নাশের হুমকি’ প্রধান শিক্ষকের

    • আপডেটের সময় : রবিবার, ২১ আগস্ট, ২০২২

    শরীয়তপুর প্রতিনিধি:


    শরীয়তপুরের দুই সাংবাদিককে প্রাণনাশের হুমকি দেয়ায় ডামুড্যা পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুজিত কর্মকারের বিরুদ্ধে ডামুড্যা থানায় একটি সাধারন ডায়েরী (জিডি) করা হয়েছে।

    ঐ ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে প্রধান শিক্ষক তাদের সাথে অসৌজন্য মুলক আচরন করে পরে মোবাইলে প্রান নাশের হুমকি দেয়।

    এ ঘটনায় গতকাল শুক্রবার রাতে সাংবাদিক আশিকুর রহমান জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে ডামুড্যা থানায় জিডি করেন। অপর দিকে ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের ঘটনায় মানেজিং কমিটির এক সদস্যকে প্রধান করে ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ঐ শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

    আলোকিত সকালের পত্রিকার ভেদরগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধি মোঃ আশিকুর রহমান ও বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মোঃ মোক্তার হোসেন ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, সম্প্রতি ডামুড্যা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক (কৃষি শিক্ষা) রথি কান্ত মিস্ত্রি কর্তৃক ৭ম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানীর ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়।

    গত ১৬ আগষ্ট বিকেলে সেই ঘটনার তথ্য সংগ্রহ করতে শরীয়তপুর জেলায় কর্মরত দৈনিক যায়দিন পত্রিকার ভেদরগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধি শাহাদাৎ হোসেন ওদৈনিক আলোকিত সকাল পত্রিকার শরীয়তপুর জেলা প্রতিনিধি মোঃ আশিকুর রহমান বৃহস্পতিবার (১৬ আগষ্ট) ডামুড্যা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে যান। সেখানে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুজিত কর্মকারের কাছে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করার বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি তথ্য দিতে পারবেন না বলে অপারগতা প্রকাশ করেন। তখন সাংবাদিকরা চলে আসে।

    সাংবাদিকরা সেখান থেকে চলে আসলে তার কিছুক্ষণ পর সন্ধ্যা ৭ টার দিকে প্রধান শিক্ষক সুজিত কর্মকার যাযদিনের সাংবাদিক আশিকুর রহমানের মোবাইলে কল দিয়ে তাকে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করেন এবং তাদেরকে দেখে নেওয়া সহ প্রাণ নাশের হুমকি দেন। এ বিষয়ের ২ মিনিট ৯ সেকেন্টের ভিডিও টি ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাই্রাল হয়েছে। পরে ছাত্রীকে যৌন হয়রানির বিষয়টি তদন্ত করার জন্য বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আলমগীর হোসেন মোল্লাকে প্রধান করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি করা হয়েছে।

    তাদেরকে আগামী ৭ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি যৌন নির্যাতন কারী শিক্ষক রথিকান্ত মিস্ত্রিকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। অপরদিকে গত ১৯ আগষ্ট শুক্রবার আলোকিত সকাল পত্রিকার ভেদরগঞ্জ উপজেলার সাংবাদিক আশিকুর রহমান জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে ডামুড্যা থানায় এই জিডি করেন।

    সাংবাদিক আশিকুর রহমান বলেন, আমরা সাংবাদিকরা জনগনের কথা গণমাধ্যমে তুলে ধরি। একজন শিক্ষক হয়ে এমন ভাষা ব্যবহার করতে পারে তা আমার জানা ছিলো না। তিনি আমাকে গালি গালাজ করেই ক্ষান্ত হননি। তিনি আমাকে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়েছেন। এখন আমি আমার জীবনের নিরাপত্তা নিয়ে সংকিত। তাই আমি জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় জিডি করেছি।

    এ ব্যাপারে ডামুড্যা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন বলেন, শিক্ষক হয়ে মানুষের সাথে এ রকম ভাষায় কথা বলা উচিৎ হয়নি।
    ডামুড্যা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক (কৃষি শিক্ষা) রথি কান্ত মিস্ত্রি বলেন, আমি এ ধরনের ঘটনা ঘটাইনি। এটা আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার মাত্র।

    বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুজিত কর্মকার বলেন, আমার মাথা ঠিক ছিল না। তাই আমি বলে ফেলছি।
    শরীয়তপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি অনল কুমার দে বলেন, ডামুড্যা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের ভাষা গ্রহনযোগ্য নয়। আমি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। এ ঘটনার সুষ্ঠ বিচার দাবী করছি।

    এ বিষয়ে ডামুড্যা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শরিফ আহম্মেদ বলেন, জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে যায়যায় দিন পত্রিকার সাংবাদিক আশিকুর রহমান থানায় জিডি করেছেন। আমরা তদন্ত করে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করবো।


    নাছির/এআর

    82Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর