1. [email protected] : News room :
লাইনচ্যুত তিন বগি উদ্ধার-০১০ ট্রেনের যাত্রা বাতিল - লালসবুজের কণ্ঠ
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০৮:০৬ অপরাহ্ন

লাইনচ্যুত তিন বগি উদ্ধার-০১০ ট্রেনের যাত্রা বাতিল

  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই, ২০১৯

রাজশাহী ব্যুরো:

রাজশাহীর চারঘাটে লাইনচ্যুত হওয়া তেলবাহী ট্রেনের উদ্ধার কাজে তেমন অগ্রগতি নেই। বুধবার রাত সাড়ে ৯টা থেকে রিলিফ ট্রেন উদ্ধারকাজ শুরু করে। তবে বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) বেলা ১১টা পর্যন্ত মাত্র তিনটি বগি উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

বাকি রয়েছে আরো ৬টি বগি যেগুলো খুবই নাজুক অবস্থায় রয়েছে। তাই উদ্ধার কাজ করতে হচ্ছে অতি সাবধনতার সঙ্গে।

কর্তৃপক্ষ বলছে, সারাদিন যদি বৃষ্টি না হয়, তবে সন্ধ্যা নাগাদ কাজ শেষ হবে। আর বৃষ্টি হলে উদ্ধারকাজে আরো বিলম্ব হতে পারে। উদ্ধারকাজ শেষে করা হবে লাইন মেরামতের কাজ। সেক্ষেত্রে আজ বৃহস্পতিবার রাতেও রাজশাহী-ঢাকা রুটের সব ট্রেনের যাত্রা বাতিল করা হতে পারে।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের সুপারিন্টেনডেন্ট আবদুল করিম বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে জানান, বগিগুলো তেলবাহী হওয়ায় উদ্ধারকাজে অতিরিক্ত সাবধানতা অবলম্বন করতে হচ্ছে। বুধবার রাতে উদ্ধারকাজ শুরু করা হলেও টানা বৃষ্টির কারণে তেমন অগ্রগতি হয়নি। ভোররাতেও ঘটনাস্থলে ভারী বৃষ্টি হয়েছে। সকাল থেকে বৃষ্টি না থাকায় উদ্ধার কাজে তৎপরতা বাড়ানো হয়েছে।

রাজশাহীতে ট্রেন লাইনচ্যুত: সহকারী প্রকৌশলী বরখাস্ত

তিনি আরো জানান, যেভাবে এখন উদ্ধারকাজ চলছে, তাতে সন্ধ্যা নাগাদ উদ্ধারকাজ শেষ হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে ফের যদি বৃষ্টি শুরু হয়, সেক্ষেত্রে আরো বিলম্ব হবে। বগিগুলো উদ্ধারকাজ শেষে রেললাইন মেরামতের কাজ করা হবে। অনেক স্থানে স্লিপার ভেঙে গেছে। সেগুলো মেরামত করতে আরো সময় লাগবে। এখনই কিছু বলা সম্ভব হচ্ছে না।

এদিকে, বুধবার রাতে ঢাকা-রাজশাহী রুটের সব ট্রেনের যাত্রা বাতিল ঘোষণা করা হয়। রাত ১১টা ২০ মিনিটে ধূমকেতু ও বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকাগামী আন্তঃনগর সিল্কসিটি এক্সপ্রেস, বিরতিহীন বনলতা এক্সপ্রেস, খুলনাগামী সাগরদাড়ি এক্সপ্রেস, মধুমতি এক্সপ্রেস ও বরেন্দ্র এক্সপ্রেসের যাত্রা বাতিল করা হয়েছে। রাজশাহী থেকে ঈশ্বরদী, রাজশাহী থেকে সিরাজগঞ্জগামী লোকাল ট্রেনগুলোও রাজশাহী স্টেশন থেকে ছেড়ে যায়নি।

বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় খুলনাগামী কপোতাক্ষ এক্সপ্রেস, বিকেল সাড়ে ৩টায় গোপালগঞ্জগামী টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেস ও বিকেল ৪টায় ঢাকাগামী আন্তঃনগর পদ্মা এক্সপ্রেসের যাত্রাও বাতিল করা হয়েছে। এসব ট্রেনের আগাম টিকিট নেওয়া যাত্রীরা স্টেশনে এসে টিকিটের টাকা ফেরত নিতে পারবেন।

তবে রাতের ঢাকাগামী ধূমকেতু এক্সপ্রেসের যাত্রা বাতিল করা হবে কিনা সেই ব্যাপারে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। আর বুধবার বিকেলে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা আন্তঃনগর সিল্কসিটি এক্সপ্রেস নাটোরের আব্দুলপুর স্টেশনে এবং বিরতিহীন বনলতা এক্সপ্রেস রাজশাহীর বাঘার আড়ানী স্টেশনে যাত্রী নিয়ে আটকা পড়েছে।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক খোন্দকার শহিদুল ইসলাম বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের যে কোনো দুর্ঘটনায় ঈশ্বরদী থেকে রিলিফ ট্রেন পাঠিয়ে থাকি আমরা। তারা দ্রুত গতিতে কাজ করেন। তাদের উদ্ধারকাজের ব্যাপারে কোনো সন্দেহ থাকার প্রশ্ন নেই। সমস্যা দুটি—প্রথমত এটি তেলবাহী ট্রেনের বগি। আর দ্বিতীয়ত, ভারী বর্ষণ। বৃষ্টির কারণে উদ্ধারকাজে বিঘ্ন ঘটছে। তবে আমাদের টিম দ্রুত কাজ শেষ করে লাইন ক্লিয়ার করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করছে।

তিনি বলেন, দুর্ঘটনার কবলে পড়ায় রাজশাহী থেকে যেসব ট্রেনের যাত্রা বাতিল করা হচ্ছে, সেগুলোতে টিকিট কেনা যাত্রীরা স্টেশনে এসে টিকিট দেখিয়ে অর্থ ফেরত নিতে পারবেন। এজন্য আমরা সব ব্যবস্থা করে রেখেছি।

রেলওয়ে সূত্রে জানা যায়, খুলনা থেকে বুধবার সকালে তেলবাহী একটি ট্রেন ছেড়ে আসে। বিকেলে ঈশ্বরদী স্টেশন থেকে রাজশাহী অভিমুখে যাত্রা করে ট্রেনটি। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে চারঘাটের হলিদাগাছী স্টেশনের কাছে দীঘলকান্দি এলাকায় ট্রেনের নয়টি বগি লাইনচ্যুত হয়। খবর পেয়ে সাড়ে ৭টার দিকে ঈশ্বরদী স্টেশন থেকে একটি রিলিফ ট্রেন ঘটনাস্থলে যায়। রাত সাড়ে ৯টা থেকে শুরু হয় উদ্ধারকারজ। ওই সময় দুর্ঘটনার শিকার ট্রেনটি সামনের বগিগুলো নিয়ে রাজশাহীর হরিয়ান স্টেশনে চলে যায়।

এদিকে, দুর্ঘটনার পর পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুর রশিদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। আর ঘটনা তদন্তে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের প্রধান পরিবহন কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুনকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে কমিটির সদস্যদের প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়। প্রতিবেদন পাওয়ার আগে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের কোনো কর্মকর্তাই দুর্ঘটনার কারণ জানাতে রাজি হননি।

14Shares

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর