রাজশাহী জেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক আবু সাঈদ চাঁদ - লালসবুজের কণ্ঠ
    শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:১৪ পূর্বাহ্ন

    রাজশাহী জেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক আবু সাঈদ চাঁদ

    • আপডেটের সময় : শনিবার, ৬ জুলাই, ২০১৯

    রাজশাহী ব্যুরো: রাজশাহী জেলা বিএনপির কমিটি ভেঙে দিয়ে নতুন আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। শুক্রবার বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত এ কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও চারঘাট উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবু সাঈদ চাঁদকে।

    ৪১ সদস্য বিশিষ্ট এ কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক করা হয়েছে কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য সাইফুল ইসলাম মার্শাল ও সদস্য সচিব করা হয়েছে আগের কমিটির সহ-সভাপতি বিশ্বনাথ সরকারকে। আড়াই বছর পর আগের কমিটি ভেঙে রাজশাহী জেলা বিএনপির নতুন এ কমিটি দেয়া হলো। নতুন এ কমিটিকে স্বাগত জানিয়েছেন বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

    ৪১ সদস্য বিশিষ্ট রাজশাহী জেলা বিএনপির নতুন আহ্বায়ক কমিটিতে সদস্য হিসেবে রয়েছেন সাবেক সাংসদ নাদিম মোস্তফা, জাহান পান্না, তোফাজ্জল হোসেন তপু, মতিউর রহমান মন্টু, ডিএম জিয়াউর রহমান, আব্দুল গোফুর, নজরুল ইসলাম ম-ল, রায়হানুল ইসলাম রায়হান প্রমুখ।

    জেলা বিএনপির নতুন আহ্বায়ক আবু সাঈদ চাঁদ বলেন, রাজশাহীতে বিএনপির সাংগঠনিক ঐতিহ্য ও শক্তি পুনরুদ্ধার করাই হবে তার প্রথম পদক্ষেপ। পাশাপাশি নির্যাতিত-নিপীড়িত নেতাকর্মীদের পাশে দাঁড়ানোর মাধ্যমে তাদের মনে আশার সঞ্চার করা হবে। আগামি তিন মাসের মধ্যে বিএনপির পুর্ণাঙ্গ কমিটি তৈরি করা হবে তৃণমুল নেতাকর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে।

    দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ২৬ ডিসেম্বর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভি আগের সাত বছরের পুরাতন কমিটি ভেঙ্গে দিয়ে তোফাজ্জল হোসেন তপুকে সভাপতি ও মতিউর রহমান মন্টুকে সাধারণ সম্পাদক করে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করেন। কিন্তু নতুন এ কমিটির বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়েন দলের নেতাকর্মীরা। চলে গণপদত্যাগের হিড়িক। কমিটি ঘোষণার পরদিনই রাজশাহী জেলা ও মহানগর কার্যালয়ে তালা মারেন নেতাকর্মীদের একাংশ।

    রাজশাহীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশও করেন নেতাকর্মীরা। ওই সময় অভিযোগ উঠে বিএনপি নেতা রিজভি যোগ্যতা বিচার না করেই শুধুমাত্র নিজের লোক বিবেচনায় কমিটিতে পদ দিয়েছেন।

    এদিকে পরে কমিটিতে কিছু সংশোধনী এনে নেতাকর্মীদের ক্ষোভ প্রশমন করা হয়েছিল। ২০১৭ সালের ২৯ এপ্রিল রাজশাহী জেলা বিএনপির পুর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন করা হলেও এই কমিটি সাংগঠনিকভাবে তেমন ভূমিকা রাখতে পারেনি। ফলে গত বছর থেকেই আগের কমিটি ভেঙে দেয়ার দাবি জানিয়ে আসছিলেন দলীয় নেতাকর্মীরা। শুক্রবার অবশেষে নতুন আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হলো।

    19Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর