রাজধানীতে বাস কম,দ্বিগুণ ভাড়া নিয়ে বিতণ্ডা - লালসবুজের কণ্ঠ
    বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ০৪:৪৩ পূর্বাহ্ন

    রাজধানীতে বাস কম,দ্বিগুণ ভাড়া নিয়ে বিতণ্ডা

    • আপডেটের সময় : শনিবার, ৬ আগস্ট, ২০২২

    লালসবুজের কন্ঠ,নিউজ ডেস্ক


    জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির পর রাজধানীর সড়কে দেখা মিলছে না গণপরিবহনের। সকাল থেকেই রাজধানীতে বাস চলাচল কম। দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে থেকেও বাস পাচ্ছেন না যাত্রীরা। দুয়েকটা বাস মিললেও আদায় করা হচ্ছে নির্ধারিত ভাড়ার চেয়েও বেশি। এ নিয়ে চালক-সহকারীদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়াচ্ছেন যাত্রীরা।

    শনিবার সকাল থেকে রাজধানীর শ্যামলী, ফার্মগেট, নতুন বাজার, বাড্ডা, শাহবাগ ও বাংলামোটরসহ বিভিন্ন পয়েন্টে এ চিত্র দেখা গেছে।

    এদিকে গণপরিবহন সংকটে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন মানুষ। অনেকেই হেঁটে হেঁটে দূরত্ব কমাচ্ছেন। পরে কিছুটা রিকশায় চড়ে যাচ্ছেন। আর বাসে উঠতে পারলেও ভাড়া আদায় করা হচ্ছে দেড় গুণ থেকে দ্বিগুণ!

    তানজিল পরিবহনের একটি বাসে মিরপুর চিড়িয়াখানা থেকে ফার্মগেটের ভাড়া চাওয়া হচ্ছিল ২৫ টাকা ও গুলিস্তানের ৪০ টাকা। গতকাল পর্যন্ত এই দূরত্বে ভাড়া নেওয়া হয়েছে ১৫ টাকা ও ২৫ টাকা৷

    বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, রাস্তার দুই পাশে রাজধানীতে চলাচল করা বাসগুলো সারিবদ্ধভাবে দাঁড় করিয়ে রাখা হয়েছে। চালক-হেলপাররা বলছেন, ডিজেলের দাম হুট করে যে পরিমাণ বেড়েছে, তাতে আগের ভাড়ায় যাত্রী পরিবহন করা বাসগুলোর পক্ষে সম্ভব হবে না। তাই আপাতত যাত্রী পরিবহন বন্ধ রাখা হয়েছে।

    এদিকে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির পর আজ সকাল থেকে চট্টগ্রাম নগরীতে গাড়ি না চালানোর ঘোষণা দিয়েছেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পরিবহন মালিক গ্রুপ। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পরিবহন মালিক গ্রুপের সভাপতি বেলায়েত হোসেন গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। নতুন ভাড়া সমন্বয় না করা পর্যন্ত বাস বন্ধ থাকবে বলে জানান তিনি।

    বাস বন্ধ রাখার বিষয়ে বেলায়েত হোসেন বলেন, জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়ে দেওয়ার কারণে রাতে পেট্রোল পাম্পগুলো তেল দেয়নি। সরকার জ্বালানি তেলের দাম ৪২ শতাংশ বৃদ্ধি করেছে। এত দাম দিয়ে জ্বালানি কিনে একই ভাড়ায় আমাদের পক্ষে গাড়ি চালানো সম্ভব না।

    শুক্রবার রাতে হঠাৎ করে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেয় সরকার। বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ডিজেল, কেরোসিন, অকটেন ও পেট্রোলের মূল্য ভোক্তা পর্যায়ে পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে। রাত ১২টার পর থেকে ডিপোর ৪০ কিলোমিটারের ভেতর ভোক্তা পর্যায়ে খুচরা মূল্য লিটারপ্রতি ডিজেল ও কেরোসিন ১১৪ টাকা, লিটারপ্রতি অকটেন ১৩৫ টাকা ও লিটারপ্রতি পেট্রোল ১৩০ টাকা হবে। শুক্রবার রাত ১২টা থেকে এই দাম কার্যকর হয়েছে।

    সর্বশেষ ২০২১ সালের ৪ নভেম্বর ডিজেল ও কেরোসিনের দাম বাড়ানো হয়। সেই সময় এই দুই জ্বালানির দাম লিটারপ্রতি ৬৫ টাকা থেকে ১৫ টাকা বাড়িয়ে ৮০ টাকা করা হয়। ৮ মাসের ব্যবধানে আবার বাড়ানো হলো তেলের দাম। তবে ওই সময় পেট্রোল আর অকটেনের দাম অপরিবর্তিত রাখা হয়েছিল। এবার সব ধরনের জ্বালানি তেলেরই দাম বাড়ানো হলো।

    নিউজ ডেস্ক/স্মৃতি

    0Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর