1. [email protected] : News room :
রংপুরের হত্যা-পরকীয়ার বলি হারুন ফকির - লালসবুজের কণ্ঠ
মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৭:৪৫ পূর্বাহ্ন

রংপুরের হত্যা-পরকীয়ার বলি হারুন ফকির

  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ১ অক্টোবর, ২০১৯

রংপুর সংবাদদাতা: রংপুরের পীরগঞ্জ ১৩ নং রামনাথপুর ইউনিয়নে বড় মজিদপুর এলাকায় কাঁচামাল ব্যবসায়ী হারুন ফকির (৩৮) নামের এক ব্যক্তি কে হত্যা করে কাঁঠাল গাছের সাথে ঝুলিয়ে রেখেছে ।

এলকাবাসী জানিয়েছে, গাইবান্ধা জেলার ধাপেরহাট এলাকার হিংগারগাড়া গ্রামের এমাত উদ্দীনের পুত্র । হারুন ফকির একজন কাঁচামাল ব্যবসায়ী ।

হারুন ফকির এর স্ত্রী হাসনা বেগম (৩০) পিতা আবুল হোসেন, গ্রাম বড় মজিদপুর পীরগঞ্জ রংপুর। প্রায় দু’বছর আগে অন্য এক ছেলের সাথে দুই সন্তানের জননী থাকা অবস্থায় পরকীয়া করে পালিয়ে যায়। তার স্ত্রী হাসনা বেগম ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়ে আবার হারুন ফকির এর সংসার করতে থাকে। একই কায়দায়, গত ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সকলের অজান্তে স্বামী হারুন ফকির এর বাড়ি গাইবান্ধা জেলার সাদুল্লাপুর থানাধীন ধাপের হাট এলাকার হিঙ্গারপাড়া গ্রাম থেকে, হাসনা বেগমের চাচাতো ভাই নাহিদ এর সাথে রাতের আঁধারে পালিয়ে যায়।

খোঁজাখুঁজি করার পর হাসনা বেগমের স্বামী হারুন ফকির জানতে পারে, তার স্ত্রী তার শশুর বাড়িতে অবস্থান করছে। এ বিষয়ে ফোনে শ্বশুরবাড়ির লোকজনের সাথে কথা হয়। হারুন ফকির এক পর্যায়ে শশুর বাড়িতে লোকজন এবং হাসনা বেগমের চাচাতো ভাই নাহিদ হারুন ফকিরকে তার শ্বশুর বাড়িতে আসতে বলে , তার স্ত্রীর সাথে বিবাদের মীমাংসা শেষে তার সাথে পাঠিয়ে দিবে।

এমন আশ্বাসের প্রেক্ষিতে হারুন ফকির গতকাল ৩০ সেপ্টেম্বর সোমবার রাতে শ্বশুর বাড়িতে যায়। এলাকাবাসীর ধারণা রাতে হারুনের সাথে ঝগড়া বিবাদের এক পর্যায়ে হাসনা বেগমের পরিবারের লোকজন হারুনকে মার ডাং করলে হারুন ঘটনা স্থলে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। পরে নিজেরা বাঁচার জন্য ফাঁসিতে ঝুলে রেখে
মারা গেছে কিংবা আত্মহত্যা করেছে, বলে চালিয়ে দেওয়ার জন্য বাড়ির পিছনে একটি কঁঠাল গাছে ঝুলিয়ে রাখে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায় লাশের গায়ে আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।

মরদেহ উদ্ধার করে এবং বিষয়টি নিশ্চিত করেন পীরগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) মাসুমুর রহমান, তিনি বলেন,প্রাথমিক ভাবে লাশের গায়ে আঘাতের চিহ্ন দেখে ধারনা করছি তাকে হত্যা করা হয়েছে। তবে ময়না তদন্তের পর নিশ্চিত হওয়া যাবে।

তিনি আরো বলেন- জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হারুন ফকির এর শ্বশুর আবুল হোসেন ও স্ত্রী হাসনা বেগম কে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

13Shares

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর