ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে বাংলাদেশের পণ্যের প্রচুর চাহিদা - লালসবুজের কণ্ঠ
    শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:১২ পূর্বাহ্ন

    ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে বাংলাদেশের পণ্যের প্রচুর চাহিদা

    • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২

    নিউজ ডেস্ক লালসবুজের কণ্ঠ:


    বাংলাদেশ-ভারত বাণিজ্য ও বিনিয়োগ আরও বাড়বে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) রাজধানীতে সরকারি বাসভবনে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের বিদায়ী হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামীর সঙ্গে সাক্ষাতকালে তিনি এ কথা জানান।

    বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের পরিক্ষিত বন্ধু রাষ্ট্র ভারত। উভয় দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেয়েছে, আরও বাড়ার সুযোগ রয়েছে। উভয় দেশের আন্তরিকতার কারণে ব্যবসা-বাণিজ্যের সুযোগগুলো কাজে লাগানো সম্ভব হচ্ছে।

    প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্প্রতি ভারত সফর প্রসঙ্গে টিপু মুনশি বলেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী অতিসম্প্রতি ভারত সফর করেছেন। দুই দেশের সরকার প্রধানের আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে এ সুযোগ-সুবিধার নতুন দ্বার উন্মোচিত হয়েছে। এতে উভয় দেশের মানুষের প্রত্যাশা পূরণ হবে। বাণিজ্যের জটিলতাগুলো দূর হলে ব্যবসা আরও বাড়বে।

    মন্ত্রী বলেন, সীমান্তের বর্ডার হাটগুলোর প্রতি উভয় দেশের মানুষের আগ্রহ রয়েছে। এর সুফল ভোগ করছে দুই দেশের মানুষ।

    এসময় ব্যবসা-বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধি এবং ব্যবসায়ীক জটিলতা দূর করতে ভারতের বিদায়ী হাইকমিশনারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

    তিনি বলেন, বাংলাদেশ তার প্রতি কৃতজ্ঞ। সেপা চুক্তির বিষয়ে বাংলাদেশ খুবই আশাবাদী। এতে করে সেবা ও পণ্য বাণিজ্য বিনিয়োগ মেধাস্বত্ব ও ই-কমার্সের মতো বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করা যাবে।

    এদিকে বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী বাংলাদেশের মানুষকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশে দায়িত্ব পালনের সময়টুকু স্মরণীয় হয়ে থাকবে। বাংলাদেশ এবং ভারতের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য এবং বিনিয়োগের ক্ষেত্রে অনেক কাজ হয়েছে, আরও কাজ করার সুযোগ এবং সম্ভাবনা রয়েছে।

    ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে বাংলাদেশের পণ্যের প্রচুর চাহিদা রয়েছে বলে জানান বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী।

    চট্টগ্রাম ও মঙ্গলা বন্দরকে আরও কার্যকর করে উভয় দেশের বাণিজ্য বাড়ানো সম্ভব বলে উল্লেখ করেন তিনি।

     


    লালসবুজের কণ্ঠ/এস এস

    0Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    এই বিভাগের আরও খবর