বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে কে কার মুখোমুখি হচ্ছে? - লালসবুজের কণ্ঠ
    রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৪:৫১ পূর্বাহ্ন

    বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে কে কার মুখোমুখি হচ্ছে?

    • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৪ জুলাই, ২০১৯

    লালসবুজের কণ্ঠ স্পোর্ট ডেস্ক:

    পঞ্চম বারের মত বিশ্বকাপ আয়োজন করছে ইংল্যান্ড। টুর্নামেন্টের দ্বাদশ আসর এখন পর্দা নামার অপেক্ষায়। ম্যাচ বাকি মাত্র ছয়টি। যার মধ্যে গ্রুপ পর্বের তিনটি আর সেমিফাইনাল ও ফাইনালের তিনটি ম্যাচ। এরই মধ্যে শেষ চারের টিকিট নিশ্চিত করেছে অস্ট্রেলিয়া, ভারত ও ইংল্যান্ড। চতুর্থ দল হিসেবে সেমিফাইনাল অনেকটাই নিশ্চিত নিউজিল্যান্ডের।

    যদিও এখনো পুরোপুরি শঙ্কা মুক্ত নয় কিউইরা। পাকিস্তানের সাথে কিছু হিসেব নিকেশ রয়েছে তাদের। তবে ১০০ ভাগের মধ্যে ৯৯ ভাগই বলছে নিউজিল্যান্ড খেলবে শেষ চার। তা হলে এখন প্রশ্ন, সেমিফাইনালে কে কার মুখোমুখি হচ্ছে?

    টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া সবার আগে নিশ্চিত করে শেষ চার। এরপর বাংলাদেশকে হারিয়ে দ্বিতীয় দল হিসেবে সেমিফাইনালের টিকিট পাকা করে টিম ইন্ডিয়া। আর গতকাল নিউজিল্যান্ডকে ১১৯ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে ৯ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে সেমিফাইনালে চলে যায় বিশ্বকাপের আয়োজক ইংল্যান্ডও।

    বিশ্বকাপে এখন সব হিসেব নিকেশ নিউজিল্যান্ড-পাকিস্তানকে নিয়ে। যদিও সেমির চতুর্থ টিকিট অর্জন করার দৌঁড়ে এগিয়ে নিউজিল্যান্ডই। কারণ, পাকিস্তান যদি পরের ম্যাচে বাংলাদেশকে হারিয়েও দেয়, তা হলেও নিউজিল্যান্ডকে টপকে সেমিফাইনাল খেলা কার্যত অসম্ভব পাকিস্তানের পক্ষে।

    পাকিস্তান আগামীকাল বাংলাদেশকে হারালে দুই দলের পয়েন্ট সমান হবে। উভয় দলই ১১ পয়েন্ট অর্জন করবে। কিন্তু নেট রান রেটের দৌঁড়ে যে অনেকটাই পিছিয়ে পাকিস্তান। অঙ্কের হিসেব অনুযায়ী, পাকিস্তান যদি আগে ব্যাট করে ৩৫০ রানের লক্ষ্যমাত্রা দেয়, তাহলে ৪০ রানের মধ্যে বাংলাদেশকে অল-আউট করতে হবে। যা বলতে গেল অসম্ভবই। যদি প্রথমে ব্যাট করে বাংলাদেশ, তা হলে পাকিস্তানের জন্য সমীকরণ আরও কঠিন। বাংলাদেশের করা রান এক ওভারের মধ্যে তুলতে হবে পাকিস্তানকে।

    সুতরাং, সেমিফাইনালের চার দল মোটামুটি পরিষ্কার। অস্ট্রেলিয়া, ভারত, ইংল্যান্ড এবং নিউজিল্যান্ড শেষ চারে লড়াই করবে। তা হলে এখন প্রশ্ন, সেমিফাইনালে ভারতের মুখোমুখি কোন দল? যেহেতু ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ড নিজেদের ৯টি ম্যাচই খেলে ফেলেছে, তাই পয়েন্ট টেবিলে তাদের অবস্থান পরিবর্তন হওয়ার আর কোনও সম্ভাবনাই নেই। ইংল্যান্ড এখন তিন নম্বরে। নিউজিল্যান্ড রয়েছে চারে।

    অন্য দিকে, অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের একটি করে ম্যাচ বাকি রয়েছে। ফলে এখনই বলা সম্ভব নয়, এক নম্বর এবং দু’ নম্বর কোন দু’টি দল। সে ক্ষেত্রে চার ধরনের পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে।

    প্রথমত, অস্ট্রেলিয়া যদি শেষ ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হেরে যায় এবং ভারত যদি শ্রীলঙ্কাকে হারায়, তাহলে ভারত শেষ করবে এক নম্বরে। তখন সেমিফাইনালে ভারতের সামনে নিউজিল্যান্ড। কারণ শেষ চারের নিয়ম অনুযায়ী পয়েন্ট তালিকার এক নম্বর দলের সঙ্গে চার নম্বর আর দুই নম্বর টিমের সঙ্গে তিন নম্বর দলের খেলা হওয়ার কথা।

    দ্বিতীয়ত, অস্ট্রেলিয়া যদি দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারায় আর ভারত যদি শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে যায়, তা হলে ভারত শেষ করবে দ্বিতীয় স্থানে। সে ক্ষেত্রে সেমিফাইনালে আয়োজক দেশ ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলতে হবে বিরাট কোহালিদের।

    তৃতীয়ত, উভয় দলই যদি জিতে যায়, তা হলে অস্ট্রেলিয়ার সামনে পড়বে নিউজিল্যান্ড আর ভারতের মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড। কারণ অস্ট্রেলিয়া ও ভারত শেষ ম্যাচ জিতলে এক নম্বরে শেষ করবে অজিরা। ভারত থাকবে দু’ নম্বরে।

    চতুর্থত, উভয় দলই যদি শেষ ম্যাচটা হেরে যায়, তাহলেও পয়েন্ট তালিকায় এক ও দু’ নম্বর স্থানের কোনও পরিবর্তন ঘটবে না। সে ক্ষেত্রেও সেমিতে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হতে হবে বিরাটদের।

    7Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর