1. [email protected] : News room :
বিদিশার স্ট্যাটাস- কোথায় স্বামীর লাশ, কোথায় ছেলে? - লালসবুজের কণ্ঠ
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০২:৫৪ পূর্বাহ্ন

বিদিশার স্ট্যাটাস- কোথায় স্বামীর লাশ, কোথায় ছেলে?

  • আপডেটের সময় : সোমবার, ১৫ জুলাই, ২০১৯

মহানগর সংবাদদাতা,ঢাকা:

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের লাশ শেষবারের মতো দেখতে এবং একমাত্র ছেলে এরিক এরশাদের পাশে থাকতে দেশে ফিরেছেন সাবেক স্ত্রী বিদিশা। তবে দেশে ফিরে বাধার শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ করে ফেসবুকে আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি।

সোমবার (১৫ জুলাই) দুপুর ১টার দিকে বিদিশা তার নিজ ফেসবুক আইডি থেকে এক স্ট্যাটসে এই অভিযোগ করেন।

বিদিশার ফেসবুক স্ট্যাটাস

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া তার স্ট্যাটাসটি লালসবুজের কণ্ঠ’র পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হল-

“বাবার মৃত্যুতে আমার ছেলে এরিক এর কান্নায় দেশবাসীও কেঁদেছে। আমি পাগলের মতো ছুটে চলে এসেছি দেশে। কিন্তু দেশে এসেও বাধার শিকার আমি। কোথায় স্বামীর লাশ, কোথায় ছেলে? আমার সাথে এরিককে কথাও বলতে দিচ্ছে না। দেখা করা তো দূরের কথা। এমনিতেই আমার ছেলে প্রতিবন্ধী। এই সময় যেখানে মাকে বেশি প্রয়োজন তখন আমার ছেলেকে নিয়েও রাজনীতি। শেষ পর্যন্ত মা হিসেবে ছেলের জন্য যদি জীবন দিতে হয়, আমি তাই করবো!”

রবিবার (১৪ জুলাই) সকাল পৌনে ৮টার দিকে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তার মৃত্যুর খবরে সিএইমএইচে ছুটে যান ছেলে এরিক এরশাদ। তার কান্নায় ভারী হয়ে উঠে হাসপাতাল।

জাপার মহাসচিব ও বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গাসহ অন্যরা এরিককে সান্ত্বনা দেওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু কিছুতেই শান্ত হতে পারছিল না এরিক। অল্প বয়সের এরিককে এভাবে কাঁদতে দেখে উপস্থিত অন্যরাও কেঁদে ফেলেন।

এরিক কান্নাজড়িত কণ্ঠে তার বাবার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়ে বলেন, ‘আমার বাবা আর নেই, বাবা মারা গেছেন, কিছুতেই বিশ্বাস করতে পারছি না। সবাই আমার বাবার জন্য দোয়া করবেন। আল্লাহ যেন বাবাকে বেহেশত দান করে।’

এদিকে সাবেক রাষ্ট্রপতির মৃত্যুর খবর শুনে তার সাবেক স্ত্রী বিদিশা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে লিখেন, ‘এ জন্মে আর দেখা হলো না। আমিও আজমির শরিফ আসলাম, আর তুমিও চলে গেলে। এত কষ্ট পাওয়ার থেকে মনে হয় এই ভালো ছিল। আবার দেখা হবে হয়তো অন্য এক দুনিয়াতে (পরপারে), যেখানে থাকবে না কোনো রাজনীতি।’

প্রায় ১৫ বছরে আগে বিদিশাকে বিয়ে করেছিলেন এরশাদ। তখন তারা ছিলেন রাজনৈতিক অঙ্গনের বহুল আলোচিত, যার রেশ এখনো রয়েছে। এরশাদ-বিদিশার একমাত্র সন্তান শাহতা জারাব ওরফে এরিক এরশাদ। এরপর ২০০৫ সালে বিচ্ছেদের পর এরিককে নিয়ে এরশাদ-বিদিশার যুদ্ধ আদালত পর্যন্ত গড়ায়। পরে আদালতের রায় অনুযায়ী এরিকের দায়িত্ব পান এরশাদ।

9Shares

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর