1. [email protected] : News room :
বাঁচা মরার ম্যাচে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১৭৫ - লালসবুজের কণ্ঠ
শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ০৭:১৫ পূর্বাহ্ন

বাঁচা মরার ম্যাচে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১৭৫

  • আপডেটের সময় : বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

লালসবুজের কণ্ঠ স্পোর্ট ডেস্ক:

আজ জিতলেই বাংলাদেশের ফাইনাল নিশ্চিত আর হারলে তাকিয়ে থাকতে হবে শেষ দুই ম্যাচের দিকে। জিম্বাবুয়ের সমীকরণ আরও কঠিন। আজ হারলেই সিরজ থেকে ছিটকে পড়বে তারা। এমন কঠিন সমীকরণে মাসাকাদজাদের সামনে ১৭৬ রানের পাহাড় সমান লক্ষ্য দাঁড় করিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।

টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে মাহমুদউল্লা-লিটনের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৭৫ রান সংগ্রহ করে টাইগাররা।

আজ হাসল না আফিফের ব্যাট

প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের জয়ের নায়ক আফিফ। তবে টাইগারদের দ্বিতীয় ম্যাচের মতো তৃতীয় ম্যাচেও হাসেনি তার ব্যাট। আজ সে জিম্বাবুয়ের বিপকষে ৮ বলে ৭ রান করে আউট হলে ১৫৯ রানে পঞ্চম উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

বড় সংগ্রহ তুলে মুশফিকের বিদায়

আগের ওভারে ২৯ রানে জীবন পেয়েছিলেন। সেই জীবন বেশি কাজে লাগল না মুশফিকুর রীমের। টিনোটেন্ডা মুতুম্বুজির বল ঘোরাতে গিয়ে ব্যাটের কানায় লাগে মুশফিকের। এবার দুইবারের চেষ্টায় ক্যাচ ধরেন উইকেটরক্ষক টেইলর। ১৭তম ওভারে ১৪৩ রানে চতুর্থ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। আউট হওয়ার আগে অবশ্য চতুর্থ উইকেটে মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে ৫৫ বলে ৭৮ রানের জুটি গড়ে গেছেন মুশফিক। করে গেছেন ২৬ বলে ৩২ রান।

মুশফিক-মাহমুদউল্লাহয় বড় সংগ্রহের পথে বাংলাদেশ

শুরুতেই ঝড় তুলেছিলেন লিটন। তবে দলীয় ৪৯ রানের মাথায় শান্তর বিদায়ের পর স্কোর বোর্ডে ১৬ রান যুক্ত করতে আউট হন লিটন-সাকিব। এরপর দলের হাল ধরেছেন মুশফিকুর রহীম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। দুজনেই খেলছেন সাবলীলভাবে। একই সঙ্গে আন্তর্জাতিক টি-টুয়েন্টিতে মুশফিক-রিয়াদ জুটি স্পর্শ করল ৫০০ রান। যা টি-টুয়েন্টিতে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ জুটির রান।

আজও হতাশ করলেন অধিনায়ক সাকিব

বিশ্বকাপে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা সাকিব ঘরের মাঠে চলমান টি-টুয়েন্টিতে ব্যাট হাতে বার বার হতাশ করছেন সমর্থকদের। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে ১ রানে আউট হওয়ার পর দ্বিতীয় ম্যাচেও আফগানদের বিপক্ষে আউট হন ১৫ রানে। আর আজ তৃতীয় ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ফের ব্যর্থ হন টাইগার কাপ্তান। মাত্র ১০ রান করে বুর্লের বলে উইলিয়ামসের তালু বন্দি হন।

ঝড় তুলে ফিরলেন লিটন

শুরু থেকেই দারুণ খেলছিলেন লিটন দাশ। আগ্রাসী ব্যাটে দিচ্ছিলেন বড় কিছুর ইঙ্গিত। এগোচ্ছিলেন ফিফটির দিকে। পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে ক্রিস্টোফার এমপুফুর লেগ স্টাম্পের বাইরে দিয়ে যেতে থাকা বলে ফ্লিক করতে গিয়েছিলেন তিনি। বাজে এই বলের সুবিধা কাজে লাগানোর বদলে লিটনের টপ এজে উঠে যায় আকাশে। ফাইন লেগে নেভেল মাদজিবার অনেকখানি দৌড়ে সেই ক্যাচ হাতে জমান। মাত্র ২২ বলে ৪ চার আর ২ ছক্কায় ৩৮ রান করেন লিটন।

চট্টগ্রামে চলছে লিটনের তাণ্ডব, শান্তর বিদায়

ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই স্ট্রাইকে আসেন লিটন। টানা তিন বল ডট দেয়ার পর চতুর্থ বলে এলবির ফাঁদে পড়তে পড়তে বেঁচে যান লিটন। প্রথম ওভারের শেষ বলে একরান করে খুলেন রানের খাতা। তারপরই শুরু হয় লিটনের ঝড়ো ইনিংস। টাইগারদের ওপেনিং জুটিতে আসে ৪৯ রান। তবে অভিষিক্ত শান্ত ফিরেন ১১ রান করে।

বাংলাদেশ একাদশে তিন পরিবর্তন, বাদ সাব্বির

আফগানিস্তানের বিপক্ষে আগের ম্যাচ হেরে স্কোয়াড পরিবর্তন করে বাংলাদেশ। এবার একাদশেও পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নেমেছে টাইগার শিবির। টস করতে এসে অধিনায়ক সাকিব আল হাসান জানান, তিনটি পরিবর্তন এসেছে টাইগারদের একাদশে। সৌম্য সরকার বাদ পড়ায় অভিষেক ঘটেছে নাজমুল হোসেন শান্তর। টাইগার জার্সিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেললেও টি-টুয়েন্টি খেলা হয়নি শান্তর। লিটন কুমার দাশের সঙ্গে ওপেনিংয়ে নামবেন তিনি। বাঁহাতি স্পিনার তাইজুলের পরিবর্তে লেগ স্পিনার বিপ্লব এসেছেন একাদশে। এ ম্যাচের মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হচ্ছে তার। আর সাব্বিরের পরিবর্তে পেসার শফিউল ইসলাম খেলছেন।

অপরদিকে, দুইটি পরিবর্তন এনেছে জিম্বাবুয়ে। চাতারা ও আরভিন বাড় পড়েছেন। তাদের পরিবর্তে জায়গা পেয়েছেন ক্রিস এমপফু ও রিচমন্ড মুতুম্বামি।

বাংলাদেশ একাদশ : লিটন কুমার দাশ, নাজমুল হোসেন শান্ত, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, মোসাদ্দেক হোসেন, আফিফ হোসেন, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, সাইফউদ্দিন, শফিউল ইসলাম ও মুস্তাফিজুর রহমান।

জিম্বাবুয়ে একাদশ : ব্র্যান্ডন টেইলর, হ্যামিল্টন মাসাকাদজা, রিচমন্ড মুতুম্বামি, শন উইলিয়ামস, টিনোটেন্ডা মুতোম্বোজি, রায়ান বুর্ল, রেজিস চাকাভা, নেদিল মাদজিবা, কাইল জার্ভিস, আইনস্লে লভু ও ক্রিম এমপফু।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

দুই দিনের বিরতি শেষে ফের মাঠে গড়াচ্ছে ত্রিদেশীয় টি-টুয়েন্টি সিরিজ। চট্টগ্রামে আজ বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ জিম্বাবুয়ে। এরই মধ্যে টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক মাসাকাদজা। বন্দর নগরীর জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম ম্যাচটি মাঠে গড়াবে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায়। খেলাটি সরাসরি দেখা যাচ্ছে গাজী টিভিতে।

আজকের ম্যাচটি জিম্বাবুয়ের জন্য বাঁচা মরার ম্যাচ। আর বাংলাদেশের জন্যও ফাইনাল নিশ্চিতের খেলা। যদি আজ টাইগাররা মাসাকাদজাদের হারাতে পারে তবে আফগানদের সঙ্গে ২৪ তারিখের ফাইনাল খেলবে সাকিব বাহিনী। কিন্তু জিম্বাবুয়ের কাছে হেরে গেলে অপেক্ষা করতে হবে আগামীকালকের ম্যাচের। আর গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে অবশ্যই হারাতে হবে রশিদদের।

সিরিজের প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে তিন উইকেটে হারায় স্বাগতিকরা। তবে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আফগানিস্তানের কাছে হারে ২৫ রানের ব্যবধানে। জিম্বাবুয়েও তাদের দুই ম্যাচে দুটিতেই হেরেছে। তাই আজ জয়ের বিকল্প নেই তাদের সামনে।

টি-টুয়েন্টিতে বাংলাদেশ জিম্বাবুয়ে এখন পর্যন্ত মুখোমুখি হয়েছে ১০ বার। যেখানে টাইগারদের জয় ছয়টি আর আফ্রিকার দেশটি জিতেছে বাকি চারটি ম্যাচ।

69Shares

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর