1. [email protected] : News room :
ফাঁসির মঞ্চ তৈরি করে কৃষকের আত্মহত্যা - লালসবুজের কণ্ঠ
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৩:৩৭ পূর্বাহ্ন

ফাঁসির মঞ্চ তৈরি করে কৃষকের আত্মহত্যা

  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

নিউজ ডেস্ক লালসবুজের কণ্ঠ:


ইউনিয়নের মেম্বার মজিবর রহমান সাবমারসিবল পাম্পের ক্ষতিপূরণের টাকা ফেরৎ দেয়ার জন্য এক কৃষককে হুমকি দেন। বিষয়টি স্বাভাবিকভাবে নিতে পারেননি ওই কৃষক। আতঙ্কে ফসলের মাঠে নিজেই একটি ফাঁসির মঞ্চ তৈরি করেন তিনি। এরপর সেই মঞ্চেই ফাঁসিতে ঝুলে তিনি আত্মহত্যা করেন। এমনই অভিযোগ করেছে সফি উদ্দিন নামে ওই কৃষকের পরিবার।

বুধবার (২ ফেব্রুয়ারি) মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপেজলার নয়াবিল ইউনিয়নে।

আর কৃষক সফি উদ্দিনের বা‌ড়ি উপজেলার মানিক চাঁদপাড়া গ্রামে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) রাতে ওই কৃষকের বড় ছেলে আনোয়ার হোসেন দুজনকে আসামি করে নালিতাবাড়ী থানায় এক‌টি মামলা করেন।

সফি উদ্দিনের স্ত্রী আবেদা খাতুন ও মেয়ে সুমনার অভিযোগ, সফি উদ্দিন তার নিজের জমি ও অন্যের জমিতে পানি দেয়ার জন্য একটি সাবমারসিবল পাম্প বসাতে পল্লী বিদ্যুতের সংযোগের আবেদন করেন।

অনুমতি না পেয়ে সফি উদ্দিন তার নিজ জমিতে ৭০ হাজার টাকা খরচ করে একটি সাবমারসিবল পাম্প বসান। তবে তার বাড়ির আধা কিলোমিটার দূরে একই গ্রামের আহাম্মদ আলী একটি সাবমারসিবল পাম্প বসানোর অনুমতি পান।

ওই গ্রামের মজিবর মেম্বরের পরামর্শে সফি উদ্দিনের বাড়ির কাছে অন্যের জমিতে পাম্প বসানোর জন্য প্রস্তুতি নেন আহাম্মদ আলী। একইসঙ্গে সফি উদ্দিনকে পাম্প তুলে নিতে বলেন তিনি।

পরে মজিবর মেম্বার তার কয়েকজন অনুসারীকে সঙ্গে নিয়ে একটি সালিশ বৈঠক করেন। এ সময় তারা আহাম্মদ আলীর কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ নিয়ে সফিউদ্দিনকে দেন এবং তার পাম্প তুলে নিতে বলেন। তবে দুই দিন পর সফি উদ্দিনের কাছে ক্ষতিপূরণ হিসেবে দেয়া ২০ হাজার টাকা ফেরত চান আহাম্মদ আলী ও মজিবর মেম্বার।

না দিলে তার চরম ক্ষতি হবে বলে হুমকি দেয়া হয়। এ ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে ২ ফেব্রুয়ারি রাতে ওই মাঠেই একটি ফাঁসির মঞ্চ তৈরি করে সফি উদ্দিন। পরে সেই ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেন তিনি।

এর আগে সফি উদ্দিনি তার স্বজনদের বলে যান, তার যদি মৃত্যু হয় তবে মজিবর মেম্বার ও আহাম্মদ আলী দায়ী থাকবেন।

নয়াবিল ইউপি সদস্য মজিবর রহমান জানান, এ ঘটনার জন্য তিনি দায়ী নন।

নালিতাবাড়ী থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহাম্মেদ বাদল জানান, ‘এ ঘটনায় দুইজনকে বিবাদী করে ৩০৬ ধারায় একটি মামলা হয়েছে। আমরা পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করছি।


লালসবুজের কণ্ঠ/এস এস

0Shares

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর