প্রেমিকার কথায় স্ত্রীকে হত্যা করে কারাগারে ঘাতক স্বামী - লালসবুজের কণ্ঠ
    বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:২৯ পূর্বাহ্ন

    প্রেমিকার কথায় স্ত্রীকে হত্যা করে কারাগারে ঘাতক স্বামী

    • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৪ জুলাই, ২০১৯

    মো.সাব্বির হোসেন,নরসিংদী (পলাশ প্রতিনিধি):
    নরসিংদীর রায়পুরায় প্রেমিকাকে বিয়ে করতে স্ত্রী মরিয়ম আক্তার (১৯) কে শ্বাসরোধ করে হত্যা করার অভিযোগ উঠে স্বামী মো. রাসেল মিয়ায় বিরুদ্ধে।
    ৩ জুলাই বুধবার রায়পুরা উপজেলার চরআলিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মরিয়ম একই গ্রামের মো. শাহ আলমের মেয়ে।
    হত্যার পর অভিযুক্ত রাসেল তার স্ত্রীর লাশ হাত-পা বাঁধা অবস্থায় গ্রামের পাশে মেঘনা নদীতে ফেলে দেয়। তার গতিবিধি প্রতিবেশিদের সন্দেহ হলে তারা পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ খবর পেয়ে ঘাতক স্বামীকে আটক করলে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে নদী থেকে লাশ উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতার মর্গে প্রেরণ করেন।
    এ ঘটনায় আটক অভিযুক্ত রাসেল পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তার স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার কথা শিকার করেন।

    নিহত মরিয়মের বাবা মো. শাহ আলম বাদী হয়ে বুধবার রাতেই রায়পুরা থানায় অভিযুক্ত রাসেলকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
    পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য, গত তিন মাস আগে পারিবারিক ভাবে চরআড়ালিয়া গ্রামের নয়ন মিয়ার ছেলে রাসেলের সাথে একই গ্রামের শাহ আলমের মেয়ে মরিয়মের বিয়ে হয়।

    বিয়ের আগে থেকেই একই গ্রামের অন্য একটি মেয়ের সাথে রাসেলের প্রেমের সর্ম্পক ছিলো।জিজ্ঞাসাবাদে রাসেল আরো জানায়, সে তার প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিলে তার প্রেমিকা তাকে সাব জানিয়ে দেয় বিয়ে করতে হলে স্ত্রীকে হয় ডিভোর্স না হয় হত্যা করতে হবে।এরই জের ধরে স্ত্রীকে গলায় গামছা দিয়ে পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে লাশ নদীতে ফেলে দেয়। পরে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ উপজেলার চরআড়ালিয়ার মেঘনা নদী থেকে মরিয়মের লাশ উদ্ধার করে।
    রায়পুরা থানার পুলিশ পরির্দশক মো. মোজাফ্ফর হোসেন জানায়, এ ঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে থানা মামলা দায়ের করেছেন। প্রাথমিক জিজ্ঞাবাদে সে হত্যার কথা স্বীকার করেছে।

    74Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর