পাকিস্তানকে উড়িয়ে দিল ভারত - লালসবুজের কণ্ঠ
    বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৩৪ পূর্বাহ্ন

    পাকিস্তানকে উড়িয়ে দিল ভারত

    • আপডেটের সময় : সোমবার, ১৭ জুন, ২০১৯

    ইতিহাস তার চেনা পথেই হাটলো। ছক উল্টে দিতে পারল না পাকিস্তান। বিশ্বকাপে ভারতের সঙ্গে দ্বৈরথ মানেই যেন তাদের নিশ্চিত হার। এবার নিয়ে সাতবারের লড়াইয়ে প্রতিবারই হাসিমুখ ম্যান ইন ব্লু’দের। রোববার ব্যাটে-বলে দাপট বিরাট কোহলিদের। ক্রিকেটের সেরা দ্বৈরথে মাঠের লড়াইয়ে এবারও ছিল না প্রাণ! সেই একপেশে ইতিহাস!

    ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর লড়াইটা ছিল একেবারেই নিস্প্রাণ। বৃষ্টির বাধায় শেষ পর্যন্ত ডাকওয়ার্থ ও লুইস ম্যাথডে ভারত জিতেছে ৮৯ রানে।

    টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ভারত সংগ্রহ করে ৫০ ওভারে ৫ উইকেটে ৩৩৬ রান। যা কীনা পাকিস্তানের বিপক্ষে বিশ্বকাপে কোনো দলের সর্বোচ্চ সংগ্রহ। বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে আগের সর্বোচ্চ ছিল নটিংহ্যামে ইংল্যান্ডের ৯ উইকেটে ৩৩৪ রান। আর ভারতের সর্বোচ্চ ছিল গতবার করা ৭ উইকেটে ৩০০ রান।

    এরপর বল হাতেও একইভাবে আধিপত্য থাকল ভারতের। জয়ের পথেই ছিল দল। ৩৫ ওভারে পাকিস্তান যখন ৫ উইকেট হারিয়ে ১৬৬ তখনই ফের শুরু হয় বৃষ্টি। এরপর আর খেলা শুরু হলে কঠিন এক লক্ষ্য দাঁড়ায় পাকিস্তানের সামনে। ৩০ বলে চাই ১৩৬! মিশন ইমপসিবল।

    আর সেই লড়াইয়ে ৪০ ওভারে ৬ উইকেটে ২১২ রানে আটকে যায় পাকিস্তান। বৃষ্টির শঙ্কা নিয়ে শুরু হওয়া এই মহারণে টস জিতে সরফরাজ আহমেদের শুরুতে বোলিং করার সিদ্ধান্তটা প্রশ্নবিদ্ধ হয়েই থাকল।

    বড় সংগ্রহের সামনে জবাব দিতে নেমে অপয়া ১৩ রানে প্রথম উইকেট হারায় পাকিস্তান। ৭ রানে সাজঘরে ফেরেন ইমাম উল হক। তবে এরপরই প্রতিরোধ গড়েছিলেন ফকর জামান ও বাবর আজম। দু’জন দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে করেন ১০৪ রান। বাবর ৪৮ রানে বিদায় নিতেই শুরু উইকেট পতনের মিছিল। ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ চলে যায় ভারতের হাতে।

    ফকর জামান ৭৫ বলে ৭ চার ও ১ ছয়ে দলীয় সর্বোচ্চ ৬২ রান করেন। শেষ দিকে ইমাদ ওয়াসিমের ৪৬ রানের ইনিংস শুধু হারের ব্যবধানটাই কমিয়েছে।

    ভারতের হয়ে বিজয় শঙ্কর ৫.২ ওভারে ২২ রানে নেন ২টি উইকেট। হার্দিক পান্ডিয়া ও কুলদীপ যাদব তুলে নেন দুটি করে উইকেট।

    এর আগে শিখর ধাওয়ানের ইনজুরিতেই ওপেনিংয়ে সুযোগ পেয়ে যান লোকেশ রাহুল। আর সেটি কাজেও লাগালেন তিনি। রোহিত শর্মার সঙ্গে মিলে উদ্বোধনী জুটিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে গড়েন রেকর্ড। ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ড রোহিত-রাহুল গড়েন ১৩৬ রানের ওপেনিং জুটি। এটিই এখন পাকিস্তানের বিপক্ষে বিশ্বকাপের ইতিহাসে ভারতের সর্বোচ্চ ওপেনিংয়ে রানের জুটি। তারা ভেঙ্গে ফেলেন শচীন টেন্ডুলকার ও নভজ্যোৎ সিং সিধুর গড়া ১৯৯৬ বিশ্বকাপের রেকর্ড। তারা গড়েছিলেন ৯০ রানের জুটি।

    রেকর্ড গড়া জুটিতে রাহুল ফেরেন ৫৭ রানে। ৭৮ বলের ইনিংসে ছিল ৩টি চার ও ২টি ছক্কা। রোহিত শর্মা তুলে নেন শতরান। ১১৩ বলে করেন ১৪০ রান। ৩৪ বলে ফিফটি করেন তিনি। ক্যারিয়ারের ২৪তম শতরান করেন ৮৫ বলে।

    বিরাট কোহলির ব্যাট থেকে আসে ৬৫ বলে ৭৭ রান। আউট না হয়েও প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি! হঠাৎ আমিরের বলে সরফরাজের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট তিনি। যদিও পরে দেখা যায় বলটি তার ব্যাটেই লাগেনি! আম্পায়ারের নির্দেশের জন্য অপেক্ষা না করে কিংবা রিভিউ না নিয়েই সাজঘরে ফিরে যান কোহলিং

    এই ইনিংস খেলার পথে ব্যাটিং লিজেন্ড শচীন টেন্ডুলকারকে পেছনে ফেলেন কোহলি। ২৭৬ ইনিংসে ওয়ানডেতে দ্রুততম ১১ হাজার রানের রেকর্ড গড়েন তিনি। সেই রেকর্ড ভাঙ্গেন কোহলি মাত্র ২২২ ইনিংসে।

    মোহাম্মদ আমির ৪৭ রানে নেন ৩ উইকেট। একটি করে উইকেট শিকার করেন হাসান আলি ও ওয়াহাব রিয়াজ।

    32Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর