1. [email protected] : News room :
নাচোলে প্রতিবন্ধী পরিবারের মাঝে সহায়তা প্রদান - লালসবুজের কণ্ঠ
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০২:২৮ পূর্বাহ্ন

নাচোলে প্রতিবন্ধী পরিবারের মাঝে সহায়তা প্রদান

  • আপডেটের সময় : শনিবার, ১৩ জুলাই, ২০১৯

নাচোল প্রতিনিধি: চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে তিন প্রতিবন্ধী মেয়ে নিয়ে অসুস্থ্য পিতা নেকবর আলী দিশেহারা।

এ নিয়ে সম্প্রতি পত্র-পত্রিকায় নেকবর আলীর অসহায়ত্বের প্রতিবেদন প্রকাশের পর এক ব্যক্তির আর্থিক সহায়তা আমাদের নাচোল প্রতিনিধির মাধ্যমে পৌঁছে দেয়া হয়।

নাচোল উপজেলার নেজামপুর ইউনিয়নের ডিমকইল গ্রামের দিনমজুর নেকবর আলীর ফুটফুটে বড় মেয়ে লিপি কেবই কিশোরী বয়সে হেসে খেলে বেড়াতে শুরু করেছে। ঠিক ওই বয়সে আক্রান্ত হয় অজানা অসুখে। দিনে দিনে দুরন্ত কিশোরী লিপির পায়ের শক্তি হারাতে থাকে।

বাবা নেকবর আলী ও মা রেজিয়া বেগম মেয়ের চিকিৎসা করাতে শেষ সম্বল বাড়ীর ভিটেটুকুও নেকবর তার ভাইদের কাছে বন্ধুক রেখে মেয়ের চিকিৎসা করান।

কিন্তু ততদিনে ১৫ বছরের লিপি হাটাচলার শক্তি হারিয়ে ফেলেছে। দিশেহারা নেকবর আলী তবুও মেয়ের চিকিৎসার হাল ছাড়েনি। কিন্তু বিধি বাম বড় মেয়ের চিকিৎসা শেষ করতে না করতে মেজো মেয়ে মনির বয়স ১৪বছর হতেই একই অবস্থা। এমনিভাবে ছোট মেয়ে ঝুমুরেরও পায়ের শক্তি হারিয়ে যায়। চোখে অন্ধকার দেখে পিতা নেকবর আলী ও মা রেজিয়া বেগম।

বড় মেয়ে লিপি (৩০), মেজো মেয়ে মনি (২৮) ও ছোট মেয়ে ঝুমুর (২২) এর ১৬ বছর যাবত ডাক্তারী ও কবিরাজি চিকিৎসা করাতে গিয়ে নিস্ব নেকবর আলী। তার নিজেরও ডায়াবেটিস ধরা পড়েছে। গত তিন মাস যাবত নিজের চিকিৎসা করাতে দেনাগ্রস্ত হয়ে পড়েছে নেকবর আলী।

নেকবর আলীর বাম পায়ের আঙুলে পচন ধরে গেলে তিনটি আঙুল কেটে ফেলতে হয়েছে। ডান পায়ের ও বুকের বাম পাঁজরে অপারেশন করাতে হয়েছে। সে নিজেও এখন প্রতিবন্ধী।

অসহায় নেকবরের তিন মেয়ে নাচোল সমাজসেবা দপ্তর থেকে প্রতিবন্ধী ভাতা পেলেও নিজের ও তিন মেয়ের চিকিৎসা খরচ চালাতে দিশেহারা হয়ে পড়েছে স্ত্রী রেজিয়া বেগম। বুকফাটা হাহাকার আর আল্লার কাছে প্রার্থনা করছে অসুস্থ্য স্বামী আর তিন মেয়ের আগে যেন তার মৃত্যু না হয়।

রেজিয়া বেগম সরকারের ও দেশের বিত্তবানদের প্রতি তাকে সাহায্যের আহ্বান জানিয়েছেন।

98Shares

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর