দেশে ব্যাঙের ব্যাপকহারে আবাসস্থল ধ্বংস হচ্ছে - লালসবুজের কণ্ঠ
    সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৯:০৪ পূর্বাহ্ন

    দেশে ব্যাঙের ব্যাপকহারে আবাসস্থল ধ্বংস হচ্ছে

    • আপডেটের সময় : রবিবার, ১৯ মে, ২০১৯

    দেশে ব্যাঙের সবচেয়ে বড় হুমকি হচ্ছে ব্যাপকহারে আবাসস্থল ধ্বংস, প্রাকৃতিক পরিবেশের রূপান্তর। মানুষ নিজেদের প্রয়োজনে যেমন কৃষিকাজ, রাস্তাঘাট, কলকারখানা,বসতির জন্য প্রাকৃতিক বিভিন্ন বন-জঙ্গল এবং জলাশয় ধ্বংস করছে। কিন্তু ভুলে গেলে চলবে না উপযুক্ত জলীয় পরিবেশ না পেলে ব্যাঙের প্রজনন ব্যাহত হয়। আর প্রকৃতিতে ব্যাঙ না বেঁচে থাকলে খাদ্য শৃংখলা ভেঙ্গে পড়বে।
    বিশ্ব ব্যাঙ দিবস উপলক্ষে বৃহস্পতিবার এক আলোচনা সভায় বিশেষজ্ঞরা এসব কথা বলেন। এতে তারা আরো বলেন, কলকারখানার বর্জ্য, বসতবাড়িতে ব্যবহার্য বর্জ্য পানিতে ফেললে পানি দূষিত হচ্ছে। এর ফলে ব্যাঙের পরিবেশ ক্ষতিগ্রস্থ হয়। কেননা উপযুক্ত জলীয় পরিবেশ না পেলে ব্যাঙের প্রজনন ব্যাহত হয়। তারা বিপন্ন ব্যাঙ সংরক্ষণে এগিয়ে আসার আহবান জানান।
    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগ ও বাংলাদেশ প্রাণিবিজ্ঞান সমিতির যৌথ উদ্দোগে বৃহস্পতিবার এক বর্ণাঢ্য শোভা যাত্রা ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। পরে প্রাণিবিদ্যা বিভাগের মিলনায়ানে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জীব বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মো ইমদাদুল হক। বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক ড. গুলশান আরা লতিফা, অধ্যাপক ড. নূর জাহান সরকার, প্রফেসর হুমায়ুন রেজা খান, প্রফেসর ড. নিয়ামুল নাসের, প্রফেসর আনোয়ারুল ইসলাম, আলিফা বিনতে হক, অধ্যাপক মোঃ মোকলেসুর রহমান, মাহাবুবআলম ও মুনতাসির আকাশ।
    বক্তারা আরো বলেন, পরিবেশের ভারসম্য রক্ষায় ব্যাঙ এর রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ অবদান। একটি প্রাপ্তবয়স্ক ব্যাঙ তার দেহের ওজনের ১০ গুন খাবার খেতে পারে। এরা ফসলের ক্ষেতের ক্ষতিকর পোকামাকড় খেয়ে কৃষকের উপকার করে, যার ফলে কীটনাশকমুক্তভাবে ফসল উৎপাদন সম্ভব হয়। এ ছাড়া মশা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে ব্যাঙ এর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। ছত্রাক ও ভাইরাস বাহিত রোগের আক্রমনের পৃথিবীর একতৃতীয়াংশ ব্যাঙ আক্রান্ত ও মারা যাচ্ছে। এতে করে অচিরেই অনেক প্রজাতির ব্যাঙ বিলপ্ত হওয়ার আশঙ্কা আছে। জল ও স্থল উভয় স্থানে বাসকারী প্রাণী মূলত উভচর প্রাণি নামে পরিচিত। আর উভচর প্রাণী হিসাবে সব থেকে বেশি পরিচিত ব্যাঙ। প্রাণি ভৌগলিক অঞ্চলের দিক দিয়ে বাংলাদেশ ওরিয়েন্টাল অঞ্চলের ইন্দো-হিমালয়ান ও ইন্দো-চাইনিজ অঞ্চলের সন্ধিস্থল এ অবস্থিত হওয়ার কারণে এক সমৃদ্ধ জীব বৈচিত্র্যের অধিকারী বাংলাদেশ। এছাড়া, ইন্দো-বার্মা হটস্পটের কারণে বিভিন্ন ধরনের বিরল সব বন্য প্রাণীর বসবাস এদেশে।

    0Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর