জয়পুরহাটে নিখোঁজের ৩৭ দিন পর নারীর লাশ উদ্ধার - লালসবুজের কণ্ঠ
    শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ০১:২৩ অপরাহ্ন

    জয়পুরহাটে নিখোঁজের ৩৭ দিন পর নারীর লাশ উদ্ধার

    • আপডেটের সময় : শনিবার, ২৮ মে, ২০২২

    জয়পুরহাট প্রতিনিধি:


    জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলায় নিখোঁজের ৩৭ দিন পর এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দিবাগত রাতে উপজেলার শিবপুর গ্রামে একটি সেপটিক ট্যাংক থেকে ঔ নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়।

    এ ঘটনায় ওই এলাকার প্রবাসী শাহ আলমের ছেলে উজ্জ্বল হোসেন (২১) কে তথ্য প্রযুক্তি আইনের সহযোগিতায় গ্রেফতার করা হয়। এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন ক্ষেতলাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রওশন ইয়াজদানী।

    পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, বগুড়া পুলিশ ইউনিট অন্য একটি লাশ সনাক্ত করতে গিয়ে এ ঘটনার সূত্রপাত হয়। তখন বগুড়া পুলিশের ইউনিট তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় এ ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত হয়। পরে বগুড়া থেকে উজ্জ্বল হোসেনকে আটক করে। আটককৃত উজ্জ্বল হোসেনের তথ্যমতে তার গ্রামের বাড়ি ক্ষেতলাল উপজেলার শিবপুরে আসলে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে ডেকে নেয়। উজ্জ্বল হোসেনের স্বীকারোক্তিতে তার বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে ১ মাস ৭ দিনের একটি গলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতের পড়নের কাপড় দেখে বিউটি বেগমের পরিবারের সদস্যরা লাশ সনাক্ত করে।

    আটককৃত উজ্জল আরো জানায়, মোবাইলে পরিচয়ের সূত্র ধরে প্রেমের টানে চলে আসে বিউটি বেগম। ঘটনার রাতে বিউটি বিয়ের জন্য চাপ দিলে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। হত্যার পর উজ্জ¦ল তার বাড়ীর পিছনে সেপটিক ট্যাংকে তাকে ফেলে দেয়।

    এ ব্যাপারে নিহতের বড় ভাই বাবলু মিয়া বাদী হয়ে একটি মামলা করেন।

    ক্ষেতলাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রওশন ইয়াজদানী বলেন, নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আটককৃত উজ্জ্বলকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।


    আরমান/এআর

     

    0Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর