চাকুরি না পেয়ে পেপে চাষ করছেন মাষ্টার্স পাশ চাঁপাইনবাবগঞ্জের মারুফ - লালসবুজের কণ্ঠ
    বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন

    চাকুরি না পেয়ে পেপে চাষ করছেন মাষ্টার্স পাশ চাঁপাইনবাবগঞ্জের মারুফ

    • আপডেটের সময় : রবিবার, ৩০ জুন, ২০১৯

    চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি:
    চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার শিক্ষিত যুবক নুরুল ইসলাম মারুফ। তিনি উপজেলার মোবারকপুর ইউনিয়নের নামো টিকরি গ্রামের মো.নুরতাজ আলীর ছেলে। তিন ভাই বোনের মধ্যে তিনিই একমাত্র ভাই। ২০১৩ সালে লেখা পড়া শেষ করেছেন রাজশাহী কলেজ হতে মাষ্টার্স বিভাগে। এর পর দীর্ঘদিন বিভিন্ন দফতরে ঘুরে ঘুরে চাকুরি না পেয়ে হতাস হয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে সরকারি চাকুরির বয়স শেষ হয়ে যায়। বন্ধু ও পরিবারের লোকজনের চাপে মনযোগি হন কৃষি কাজে। ২০১৮ সালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ যুব উন্নয়নের অধিনে প্রশিক্ষন নিয়ে নেমে পড়েন কৃষি কাজে।

    নিজের পেপে ক্ষেতে মারুফ

    নুরুল ইসলাম মারুফ জানান,যুব উন্নয়নে প্রশিক্ষন নিয়ে নিজ এলাকায় ৭ বিঘা জমি লীজ নিয়ে চাষ করছেন বিভিন্ন শাক সবজি। বর্তমানে দেড় বিঘা জমিতে চাষ করেছেন পেপের। তিনি বলেন,দেড় বিঘা পেে চাষ করতে খরচ হয়েছে প্রায় ৩০ হাজার টাকা।
    নিরাপদ খাদ্য হিসেবে পেপে চাষ করে পড়েছেন বে- কায়দায়। প্রচন্ড তাপদাহ’র কারনে গাছ বড় না হয়ে শুকিয়ে মরে যাচ্ছে। তার পরেও শেলো মেশিন দিয়ে পানি দেয়ার চেষ্টা করছেন। তাতে খরচও বেড়ে যাবে দ্বিগুন।

    তার বাগানে গিয়ে দেখা যায়,বাগান পরিচার্যা করতে ব্যস্ত রয়েছেন কৃষক নুরুল ইসলাম মারুফ। বাগানের যে পেপে গাছগুলো বড় হয়েছিল অধিকাংশই মরে যাচ্ছে। বর্তমানে ছোট ছোট কিছু গাছে পেপে ধরেছে। মারুফ বলনে,সময়মত আকাশের পানি পেলে পেপের ফলন ভাল হত। সেখান হতে প্রায় দে লাখ টাকার পেপে বিক্রি করা যেত।

    তাঁর দাবি-শিক্ষিত যুবক দের যদি সরকারি উদ্দ্যেগে সুযোগ সুবিধা দেয়া হয়,তবে যেমন বাড়বে নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন তেমনি কর্মসংস্থান হবে হাজার হাজার বেকার যুবকদের।

    1.7K+Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর