চলনবিলে ১৫টি বক উদ্ধার,কিল্লা ঘর ধ্বংস, মুচলেকায় ছাড়া পেল শিকারী - লালসবুজের কণ্ঠ
    শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:৪৫ পূর্বাহ্ন

    চলনবিলে ১৫টি বক উদ্ধার,কিল্লা ঘর ধ্বংস, মুচলেকায় ছাড়া পেল শিকারী

    • আপডেটের সময় : সোমবার, ৩ অক্টোবর, ২০২২
    নাটোর প্রতিনিধি


    চলনবিলে দূর্গম এলাকায় অভিযান চালিয়ে শিকারির কাছ থেকে ১৫টি বকপাখি উদ্ধার করে অবমুক্ত করেছে চলনবিল জীববৈচিত্র্য রক্ষা কমিটির সদস্যরা। সোমবার কাঁকডাকা ভোরে কাঁদা-পানি মাড়িয়ে চলনবিলের সামারকোল এলাকা থেকে এই পাখি উদ্ধার করা হয়।
    এসময় আর কোন দিন পাখি শিকার করবে না মর্মে মুচলেকা নিয়ে সোহেল নামের এক কিশোর পাখি শিকারিকে তার অভিভাবকের জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়। ধ্বংস করা হয় পাখি শিকারের ৩টি ফাঁদ কিল্লা ঘর। পরে পাখিগুলো শামারকোল বাজার ও চামারী ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে অবমুক্ত করা হয়।
    এসময় উপস্থিত ছিলেন চলনবিল জীববৈচিত্র্য রক্ষা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, সাংবাদিক ও পরিবেশ কর্মী শারফুল ইসলাম খোকন, আব্দুর রশিদ, জুবায়ের হক, আবু কাহার, হাবিব প্রমাণিক, রিপন হোসেন প্রমূখ।
    চলনবিল জীববৈচিত্র্য রক্ষা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম জানান, চলনবিলে প্রতি বছরের ন্যায় বর্ষার শেষ ভাগে ও শীতের শুরুতে পাখি শিকারির দৌরাত্ম বেড়েছে। আর এক ঝাঁক তরুণ চলনবিলে পাখি ও প্রকৃতি বঁচাতে ছুটে চলেছে। সোমবার ভোরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিংড়ার চামারী ইউনিয়নের সামারকোল বিলে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টিতে ভিজে ও কাঁদা-পানি মাড়িয়ে অভিযান চালিয়ে ৩টি কিল্লা ঘর থেকে ১৫টি বকপাখি উদ্ধার করে অবমুক্ত করা হয়েছে। পরে পাখি শিকার বন্ধে এলাকাবাসীর মধ্যে সচেতনতামূলক প্রচারণা চালানো হয়েছে।
    রাশেদুল/স্মৃতি
    0Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    এই বিভাগের আরও খবর