‘আল্লাহ তুমি আলিম দারের বিচার কর- আর সহ্য হয় না’ - লালসবুজের কণ্ঠ
    বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৫৯ অপরাহ্ন

    ‘আল্লাহ তুমি আলিম দারের বিচার কর- আর সহ্য হয় না’

    • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০১৯

    ক্রীড়া ডেস্ক: ২০১৫ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ইতিহাস গড়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে বাংলাদেশ। ওই ম্যাচে টাইগারদের প্রতিপক্ষ ছিল ভারত। ম্যাচে দুর্দান্ত খেলে সাকিবরা। ছিল জয়ের প্রবল সম্ভাবনাও। কিন্তু আম্পায়ারের বিতর্কিত সিদ্ধান্তের শিকার হয়ে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়ে বাংলাদেশ। আজ সহজ আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচেও বাংলাদেশের বিরুদ্ধে এলো একাধিক বিতর্কিত আম্পায়ারিং।

    ক্রিকেটপ্রেমীদের দাবি, ওইদিন টাইগারকে হারিয়েছিল আলিম দারের বিতর্কিত আম্পায়ারিং। আজও আলিম দারের বিতর্কিত আম্পায়ারিংয়ের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন লিটন দাস ও সৌম্য সরকার। দেশসেরা হার্ড হিটিং ব্যাটসম্যান লিটন ও সৌম্যকে যেভাবে সাজঘরে ফিরতে হয়েছে, তা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রীতিমতো সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে। এই পাকিস্তানির বিতর্কিত সিদ্ধান্ত কোনভাবেই মানতে পারছেন না দেশ-বিদেশে থাকা বাংলাদেশের ক্রিকেট ভক্তরা। তারা ফেসবুকে ক্ষোভ ঝেড়েছেন।

    বাংলাদেশের বিরুদ্ধে আলিম দারের বিতর্কিত সিদ্ধান্তগুলো সৃষ্টিকর্তার ওপর ছেড়ে দিয়ে মো. জাহিদ হাসান নামে একজন ফেসবুকে লেখেন, ‘আর সহ্য হয় না, আল্লাহ তুমি আলিম দারের বিচার কর। আমাদের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে এই পাকিস্তানী আম্পায়ার ইচ্ছাকৃতভাবে বারবার বিতর্কিত সিদ্ধান্ত দেয়।’

    টাইগার সমর্থক আতিকুর রহমান তমা লেখেন, ‘পাকিস্তানি আলিম দার থার্ড আম্পায়ার, দেশটা যেমন এর নাগরিকেরাও তেমন!’

    জেসমিন পাঁপড়ি মন্তব্য করেন, ‘এইটা আউট? আবারও আলীম দার!’

    হাবিব আনিসুর রহমান বলেন, ‘এবস্যুলেটলি নট আউট যেটা, সেটাকে আউট বলে কি করে? এর আগেও এই লিটনকেই রান আউট করে দিয়েছিল আম্পায়ার, অথচ সে আউট ছিল না।’

    পলাশ দত্ত মন্তব্য করেন, ‘থার্ড আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্ত। খেলোয়াড়ি মনোভাবের পরিচয় দিতে পারল না আফগানিস্তান।’

    এছাড়াও আলিম দারের বিরুদ্ধে হাজারো মন্তব্য ছেয়ে গেছে নেট দুনিয়ায়।

    সোমবার (২৪ জুন) বাংলাদেশের বিরুদ্ধে দুটি বিতর্কিত আম্পায়ারিং হয়েছে। আফগান বোলার মুজিবের করা ৩২তম ওভারের শেষ বলটি সৌম্য সরকারের প্যাডে লাগে। তাতেই জোর আবেদন জানায় আফগানিস্তান। ফিল্ড আম্পায়ার আঙ্গুল তুলে দেন। রিভিউ নেন সৌম্য সরকার। রিভিউ দেখলেন থার্ড আম্পায়ার যেখানে দেখা হলো না আলট্রা এজ! অথচ মনেই হচ্ছে ব্যাট স্পর্শ করে বলটি প্যাডে লাগে!

    আলট্রা এজ দেখার ধারে কাছে গেলেন না থার্ড আম্পায়ার আলিম দার। তিনি দেখলেন বলের লাইন। আর সেটা দেখেই রিভিউতে আফগানিস্তানের পক্ষে রায় দিলেন তিনি! সাধারণত লাইন দেখার পাশাপাশি আলট্রা এজটাও থার্ড আম্পায়ার দেখেন, যা দর্শকরাও দেখেন। কিন্তু সৌম্য সরকারের সিদ্ধান্ত নেওয়ার বেলায় আলট্রা এজের ধারে-কাছে গেলেন না থার্ড আম্পায়ার।

    তাতে প্রশ্নবিদ্ধ হলো আরো একটি সিদ্ধান্ত। এর আগে লিটন কুমার দাসের আউটটিও ছিল বিতর্কিত। ১০ বলে তিন রানে আউট হন সৌম্য সরকার।

    লিটনের ক্যাচটা মাটি থেকে তুলে নিলেন আফগান ফিল্ডার হাসমতউল্লাহ শহিদি। মাঠে থাকা দুই ব্রিটিশ ফিল্ড আম্পায়ার আউট দিলেন, তবে মূল সিদ্ধান্তটা ছেড়ে দিলেন থার্ড আম্পায়ারের কাছে। রিপ্লে দেখে থার্ড আম্পায়ার আলিম দার সিদ্ধান্ত দিলেন এটা আউট!

    23Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    এই বিভাগের আরও খবর