1. [email protected] : News room :
অর্থনৈতিক অঞ্চল পুরো নওগাঁ জেলার গর্ব-খাদ্যমন্ত্রী - লালসবুজের কণ্ঠ
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৪:১৫ পূর্বাহ্ন

অর্থনৈতিক অঞ্চল পুরো নওগাঁ জেলার গর্ব—খাদ্যমন্ত্রী

  • আপডেটের সময় : রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

নওগাঁ সংবাদদাতা: নওগাঁর সাপাহার উপজেলায় অর্থনৈতিক অঞ্চল শুধু সাপাহার নয় পুরো নওগাঁ জেলার গর্ব। উত্তরবঙ্গে এই প্রথম নওগাঁর সাপাহারে অর্থনৈতিক অঞ্চল হচ্ছে। এখন অর্থনৈতিক উন্নয়ন অব্যাহত থাকবে। নওগাঁর সাপাহার অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার অনুমোদন পাওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে কৃতজ্ঞতা ও অভিনন্দন জানিয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় খাদ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, সাপাহার অর্থনৈতিক অঞ্চল হওয়ায় এ এলাকার অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নয়ন হবে। মন্ত্রী আরও বলেন, অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য যাদের জমি নেয়া হবে তাদেরকে জমির বর্তমান বাজার মূল্যের চেয়ে তিনগুন অর্থ দেয়া হবে। এই অর্থ প্রাপ্তি নিয়ে কোন প্রকার কালক্ষেপন করা হবে না।

নওগাঁ জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শনিবার বিকেল ৪টায় সাপাহার জিরোপয়েন্ট চত্বরে নওগাঁ জেলা প্রশাসক হারুন-অর-রশীদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের নির্বাহী সদস্য (অতিরিক্ত সচিব) হারুনুর রশিদ, রাজশাহী রেঞ্জের উপমহাপুলিশ পরিদর্শক এ.কে.এম হাফিজ আক্তার (বিপিএম বার), নওগাঁ জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান মিয়া বিপিএম, ১৪বিজিবি ব্যাটালিয়ান অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ জাহিদ হাসান, ১৬বিজিবি ব্যাটালিয়ান অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল তুহিন মোহাম্মাদ মাসুদ প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান উপজেলা নির্বাহী অফিসার গন সহ জনসভায় হাজার হাজার শ্রোতা উপস্থিত ছিলেন। জানা যায়, নওগাঁ-১ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য বর্তমান সরকারের খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপির নিরলস প্রচেষ্টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এক বৈঠকে গত ৯ সেপ্টেম্বর-২০১৯ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ‘সাপাহার অর্থনৈতিক অঞ্চল’ নওগাঁ পরিপত্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার অনুমোদন দিয়েছেন। সাপহারের খেরুন্দা মৌজার ২২.২০ একর খাস জমি ও ২৩১.৯৫ একর ব্যক্তি মালিকানাধীন মোট ২৫৪.১৫ একর জমিতে সাপাহার অর্থনৈতিক অঞ্চল’ প্রতিষ্ঠিত হবে।

সাপাহার বরেন্দ্র অঞ্চলের কেন্দ্রে অবস্থিত ২৪৪.৪৯ বর্গ কি.মি আয়তনের একটি কৃষি নির্ভর উপজেলা। প্রস্তাবিত অর্থনৈতিক অঞ্চলের কৃষিভিত্তিক শিল্প, খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প, পাট জাত পন্য উৎপাদন শিল্পসহ নানবিধ শিল্প প্লট স্থাপনের সুযোগ হবে। সর্বোপরি সাপাহার অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার কারনে নওগাঁসহ পাশ্ববর্তী এলাকায় অর্থনৈতিক উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে যা টেকসই উন্নয়ন অভিষ্ট (এসডিজি) এর দারিদ্র বিমোচন, খাদ্য নিরাপত্তা ও পুষ্টির উন্নয়ন, স্থিতিশীল ও অংশগ্রহণমূলক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি সহ দেশের অভ্যন্তরীণ ও আন্তরাষ্ট্রীয় বৈষম্য হ্রাসের ভূমিকা রাখবে। পরে অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর দীর্ঘায়ু ও সুস্থ্যতা কামনা করে দোয়া করা হয়।

51Shares

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর