অবৈধ ড্রেজার বসিয়ে সরকারী খাল দখল করে রাস্তা নির্মানের অভিযোগ - লালসবুজের কণ্ঠ
    শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:৫৬ অপরাহ্ন

    অবৈধ ড্রেজার বসিয়ে সরকারী খাল দখল করে রাস্তা নির্মানের অভিযোগ

    • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর, ২০২২
    শরীয়তপুর প্রতিনিধি


    অবৈধ ড্রেজার বসিয়ে সরকারী খাল দখল করে রাস্তা নির্মানের অভিযোগ শরীয়তপুরের জাজিরার বিকে নগরে সরকারী খাল দখল করে  অবৈধ ড্রেজার দিয়ে মাটি কেটে রাস্তা নির্মান করার অভিযোগ উঠেছে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে। সচল খাল ও খালের উপর ব্রীজ থাকার পর ও ভরাট করায় শত শত বিঘা জমিতে ফসল উৎপাদনে ব্যাঘাত সৃষ্টির আশংকা স্থানীয় কৃষকদের।
    তবে চেয়ারম্যান বলছেন খাল ভরাট করে রাস্তা নির্মানের পাশাপাশি পানি নিস্কাসনের ব্যবস্থা রাখা হবে। ইউনিয়ন ভুমি সহকারী কর্মকর্তা বলছেন অভিযোগ পেয়ে আমি কাজ বন্ধ কওে দিয়েছি। উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানিয়েছি।
    রাসেল জমাদ্দার ,নাউডোবা ইউনিয়ন ভুমি অফিস সুত্রে জানা গেছে, শরীয়তপুর জেলার জাজিরা উপজেলার বিকে নগর
    ইউনিয়নের পশ্চিম কাজী কান্দী এলাকার সিরাজ মাদবরের বাড়ী থেকে স্থানীয় হান্নান বেপারীর বাড়ী পর্যন্ত ১৬শ ফুট খাল ভরাট
    করে রাস্তা নির্মান করছেন বি কে নগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এসকান্দার আলী ভুইয়া।
    গত ২০/২৫ দিন ধরে খালের মাঝ খানে বাশের খুটি দিয়ে পাইল করে তার মধ্যে অবৈধ ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন করে খাল ভরাট করা হচ্ছে। স্থানীয় কৃষক রাসেল জমাদ্দার সরকারী খাল ভরাট না করার জন্য জাজিরা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) বরাবরে একটি লিখিত আবেদন করেন। এর পরিপেক্ষিতে নাওডোবা ইউনিয়ন ভুমি সহকারী কর্মকর্তা যেয়ে কাজ বন্ধ কওে দেন এবং বিষয়টি জাজরিা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কে অবহিত করেন। তার পর ও বি কে নগর ইউনিয়ন পরিষদেও চেয়ারম্যান এসকান্দার আলী ভুইয়া কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। এ ছাড়া পশ্চি কাজি কান্দি ও কুবুবপর এলাকার ফসলী জমির পানি এ খাল দিয়ে নির্গত।
    জুলহাস জমাদ্দার বলেন, আমাদের এ এলাকায় জাতীয় সংসদেও হুইপ নুওে আলম লিটন চৌধুরী একটি ব্রীজ নির্মান কওে
    দিয়েছেন । যার ফলে আমাদেও ফসলি জমির পানি এ খাল দিয়ে নির্গত হয়। এ খাল ভরাট হয়ে গেলে আমাদেও ঐ সকল জমিতে ফসল উৎপাদন মারাত্নক ভাবে ব্যাহত হবে। কাজী কান্দি এলাকার আক্তার হোসেন , আল- আমিন ও নাদিম
    মাদবর বলেন , আমাদেও পশ্চিম কাজি কান্দি এলাকার প্রায় ২ শতাধিক পরিবার রাস্তার জন্য চলাচল করতে পারে  না।
    তাই চেয়ারম্যান আমাদের  এ খাল ভরাট করে রাস্তা নির্মান করে দিচ্ছেন। পাশাপাশি পানি চলাচলের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। বি কে নগর ইউনিয়ন পরিষদেও চেয়ারম্যান এসকান্দার আলী ভুইয়া বলেন , আমার ইউনিয়নের ৩ নং পশ্চিম কাজী কান্দি এলাকায় কয়েকশ জনগন রাস্তার অভাবে চলাচল করতে পাওে না তাদের চলাচলের স্বার্থে আমাকে খালের কিছু অংশ ভরাট কওে রাস্তা
    নির্মান করতে হচ্ছে।
    নাওডোবা ইউনিয়ন ভুমি সহকারী কর্মকর্তা আব্দুর রহমান খান বলেন , আমি একটি খিখিত অভিযোগ পেয়ে সরেজমিনে গিয়ে খাল ভরাট কওে রাস্তা নির্মানের কাজ বন্ধ কওে দেই। আমি ছবি তুলে আমার উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদেও কাছে পাঠিয়ে দিয়েছি। তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।
    কাজি/স্মৃতি
    86Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    এই বিভাগের আরও খবর