অবশেষে ছেলের অট্টালিকায় ঠাঁই পেলেন সেই বৃদ্ধ ‘মা’ - লালসবুজের কণ্ঠ
    সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৮:১৩ পূর্বাহ্ন

    অবশেষে ছেলের অট্টালিকায় ঠাঁই পেলেন সেই বৃদ্ধ ‘মা’

    • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০১৯

    নরসিংদী সংবাদাতা:
    নরসিংদীর পলাশে অবশেষে ছেলের অট্টালিকায় ঠাই মিলেছে প্রায় শতবর্ষী বৃদ্ধা মা মরিয়ম বেগমের। তিনি ছেলের রাজ পালঙ্কে শুয়েই বাকি জীবন কাটাতে চান। এর আগে “ছেলে থাকেন অট্টালিকায়, মা ভাড়ার ঘরে” সংবাদ মাধ্যমে খবর প্রকাশ হলে বিষয়টি নরসিংদী পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহম্মেদের দৃষ্টিগোচর হয়। পরে বৃদ্ধার ছেলে পলাশ উপজেলার ঘোড়াশাল পৌর এলাকার ব্যবসায়ী ও আওয়ামী লীগ নেতা কিরণ শিকদারকে আটক করে পুলিশ। ছেলে কিরণ শিকদারকে আটকের পর মাকে নিজের কাছে রাখা হবে এমন অঙ্গীকার করলে পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয়।

    মঙ্গলবার (২৫ জুন) দুপুরে সরেজমিন কিরণ শিদারের ভবনে গিয়ে দেখা যায়, তিনতলা ভবনের ২য় তলায় মাকে নিয়ে অবস্থান করছেন কিরণ ও তার পরিবারের সদস্যরা। সেখানে অনেকটা হাসি-খুশিতে সময় পার করছেন বৃদ্ধা মা মরিয়ম বেগম। দুইদিন আগেও যেই বৃদ্ধা মা ভাড়া করা ভাঙ্গা ঘরের মেঝেতে দেওয়া বিছানায় ঘুমিয়েছিলেন। এখন তিনি ছেলের অট্টালিকায় আরাম আয়েশে সময় পার করছেন।

    ছেলের বাসায় এসে কেমন লাগছে জানতে চাইলে মরিয়ম বেগম বলেন, নিজের বাসায় এসে আমার অনেক ভালো লাগছে। একা একা আমার কোথাও থাকতে ভাল লাগে না। জীবনের বাকি দিনগুলো ছেলে, নাতি-নাতনি ও পুত্রবধূকে নিয়েই থাকতে চাই।

    বৃদ্ধা মায়ের ছেলে কিরণ শিকদার জানান, মাকে কাছে পেয়ে আমারও খুব আনন্দ লাগছে। মার যেখানে ভাল লাগবে সেখানেই থাকবেন। যতদিন বেঁচে থাকি নিজের কাছে রেখে মায়ের সেবাযত্ন করে যাবো।

    উল্লেখ, স্ত্রীর কথায় গত রমজান মাসে বৃদ্ধ মাকে পাশের নতুন বাজার এলাকার গফুর মিয়ার একটি ভাঙ্গা টিনের ঘর ভাড়া করে সেখানে রাখেন একমাত্র ছেলে কিরণ শিকদার। সেখানে গিয়ে ছেলে মাঝেমধ্যে কিছু বাজার কিনে দিয়ে দায়িত্ব শেষ করলেও বৃদ্ধা মরিয়মের দেখাশোনা করতেন পাশের ভাড়াটিয়ারা।

    272Shares

    এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.

    এই বিভাগের আরও খবর